ফের বিতর্কের মুখে ডিআরএস। ভারত বনাম ওয়েস্টইন্ডিজ ম্যাচে ডিআরএস প্রযুক্তি সঠিক সিদ্ধান্তে না পৌঁছতে পারলেও ভারতীয় সহঅধিনায়ক রোহিত শর্মাকে আউট দিয়ে দিলেন তৃতীয় আম্পায়ার মাইকেল গফ। যা নিয়ে ক্ষোভে ফুসছে ভারতীয় সমর্থকরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ক্ষোভের আঁচ পাওয়া যাচ্ছে ভাল মতোই।

টসে জিতে কোহলি ব্যাট নেওয়ার পর গোড়াপত্তনকারী রোহিত শর্মার বিদায়ে শুরুতেই ধাক্কা খায় ভারত। ভারতের ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে বল করেছেন কেমার রোচ। শেষ বলটি রোহিতের ব্য়াট ও প্যাডের মধ্য দিয়ে গিয়ে জমা পড়ে উইকেটরক্ষক শাই হোপের গ্লাভসে। রোচ-হোপ ও অন্যান্য ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটাররা আবেদন করে ওঠেন। কিন্তু মাঠের আম্পায়ার রিটার্ড ইলিংওযার্থ আউট দেননি।

এরপরই ওয়েস্টইন্ডিজ সিদ্ধান্তটি রিভিউ-এর জন্য পাঠায় তৃতীয় আম্পায়ারের কাছে। কিন্তু ডিআরএস-এ যে  যে প্রযুক্তি ব্যাবহার করা হয়, কিন্তু বলটি রোহিতের ব্য়াটে আদৌ লেগেছিল নাকি তাতে নিশ্চিত করা যায়নি। আলট্রাএজ প্রযুক্তিতে বলটি রোহিতের ব্যাট ও প্যাডের মধ্য দিয়া যাওয়ার সময় স্পাইক দেখা যায়। কিন্তু সেটা ব্য়াটে লাগার জন্য, না প্যাডে তা স্পষ্ট হয়নি।

কিছুক্ষণ বিভিন্ন কোন থেকে রিপ্লে দেখার পর তৃতীয় আম্পায়ার মাইকেল গফ আউট দিয়ে দেন। তাঁর নির্দেশ পাওযার পর নিজের সিদ্ধান্ত বদল করা ছাড়া উপায় ছিল না ইলিংওয়ার্থের। অথচ আউটের বিষয়ে নিশ্চিত না হলে ব্যাটসম্যানকে অ্যাডভান্টেজ দেওয়াটাই ক্রিকেটে দস্তুর। এই আউটের ফলে এদিন মাত্র ২৯ রানের মাথাতেই প্রথম উইকেট হারায় ভারত।

সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেননি রোহিত শর্মাও। মাঠের মধ্যেই তাঁকে অসন্তোষ প্রকাশ করতে দেখা যায়। এরপরই ভারতীয় সমর্থকরা গর্জে উঠেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। স্বাবাবিকভাবেই তাদের রোষের নিশানায় রয়েছেন তৃতীয় আম্পায়ার গফ।