বিশ্বকাপ ২০১৯ শুরু হওয়ার আগে এই বিশ্বকাপই সেরা বিশ্বকাপ হতে যাচ্ছে এরকম ধারণা করেছিল গোটা ক্রিটেক বিশ্ব। তবে বেশ কয়েকটি ম্যাচই বৃ্ষ্টিতে ধুয়ে যাওয়ায় বেশ হতাশ ক্রিকেট ভক্তরা। তবে ভারত-অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তান-ইংল্যান্ড বা অস্ট্রেলিয়া-ওয়েস্টইন্ডিজ ম্যাচের মতো বেশ কয়েকটি আকর্ষণীয় লড়াই দেখা গিয়েছে। একই সঙ্গে বিশ্বকাপের প্রথম ১৫ দিন না পার করতেই হয়েছে বেশষ কিছু রেকর্ডও। একনজরে দেখে নেওয়া যাক, রেকর্ড বইতে কী কী অদল-বদল ঘটল এই কয়েকদিনে -

- একদিনের ক্রিকেট, টি২০আই, আইপিএল-এর পর ছক্কা মারার রাজা ক্রিস গেইল, চলতি বিশ্বকাপে ওয়েস্টইন্ডিজের প্রথম ম্যাচেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ছয় মারার রেকর্ড করেছেন। আপাতত ৪০টি ছয় মেরে তিনি ভেঙে দিয়েছেন বিশ্বকাপে এবি ডিভিলিয়ার্স-এর ৩৭টি ছয় মারার রেকর্ড। প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান ২০১৫ বিশ্বকাপে ২৬টি ছয় মেরেছিলেন, যা এখনও একটি বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ছয় মাার রেকর্ড।

- নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে কার্ডিফে ওপেন করতে নেমে শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে শেষ পর্যন্ত ৫২ করে অপরাজিত থাকেন। বাকি ১০ ব্যাটসম্যানই আউট হয়ে যান। বিশ্বকাপ ১৯৯৯ সালে প্রথম এই 'ক্যারি দ্য ব্যাট'-এর ঘটনা ঘটেছিল। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাঞ্চেস্টারে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে এই কীর্তি করে দেখান ইংরেজ ব্যাটসম্যান রিডলে জেকবস। দ্বিতীয় হিসেবে তালিকায় নাম লেখালেন করুনারত্নে।

- একটিও শতরান ছাড়া বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রানের ইনিংস গড়ার রেকর্ড করেছে পাকিস্তান। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচে তাদের একজন ব্যাটসম্যানও শতরান না পেলেও তারা ৩৪৮/৮ রান তোলে।

- ওই ম্যাচেই ইংল্যান্ড রান তাড়া করে ৩৩৪ রান তুলেছিল। ফলে ম্যাচে মোট ৬৮২ রান ওঠে। যা বিশ্বকাপে একটি ম্যাচে হওযা মোট রানের তালিকায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়া বনাম শ্রীলঙ্কা ম্যাচে ৬৮৮ রান উঠেছিল। যা এই তালিকায় সবার উপরে রযেছে।

- একই ম্যাচে দুই ইংরেজ ব্যাটসম্যান জো রুট (১০৭) ও জস বাটলার (১০৩) শতরান করেন। তা সত্ত্বেও পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ১৪ রানে হারতে হয় ইংল্যান্ডকে। বিশ্বকাপের কোনও ম্যাচে এই প্রথমবার কোনও দলের দুইজন শতরান করার পরেও সেই দল ম্যাচ হারল।  
 
- রেকর্ড গড়ার তালিকায় আছে ভারতীয় দলও। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ভারতের তোলা ৩৫২/৫ রানই বিশ্বকাপে পাঁচবারের বিশ্বজয়ী অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে কোনও দলের তোলা সর্বোচ্চ রান। এর আগে ২০১৫ বিশ্বকাপে সিডনি-তে শ্রীলঙ্কা ৩১২ রান তুলেছিল। এতদিন সেই রানটাই ছিল তালিকার শীর্ষে। এই রানটা শ্রীলঙ্কা তুলেছিল রান তাড়া করে। আর প্রথমে ব্যাট করে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তোলা সর্বোচ্চ রানের ইনিংস ছিল ২৯১। যা ওযেস্টইন্ডিজ ১৯৭৫ সালের বিশ্বকাপ ফাইনালে করেছিল।