অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে দুর্দান্ত শিখর শতরান করেছিলেন শিখর ধাওয়ান। তারপরই এসেছিল তাঁর বাঁহাতের বুড়ো আঙুলের হাড়ে চিড় ধরার খবর। কিন্তু তারপরেও মনোবল অটুট ছিল তাঁর। কিন্তু বুধবার সব জল্পনা অবসান হয়ে গিয়েছে। দলের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে গব্বর আর বিশ্বকাপে খেলতে পারবেন না। দেশে ফেরার আগে তিনি ভক্তদের উদ্দেশ্যে এক ভিডিও বার্তা দিলেন।

ভিডিওটি দেখলে বোঝা যায়, শিখর অতি কষ্টে চোখের জল ধরে রেখেছেন। ভারতীয় ভক্তরাও কিন্তু ভিডিওটি দেখলে চোখের জল,ধরে রাখতে পারবেন না। তাঁর প্রত্যেক শব্দ উচ্চারণে বোঝা গিয়েছে কতটা হতাশ তিনি। কতটা উদগ্র তাঁর গদেশের হয়ে খেলার বাসনা।

তিনি জানিয়েছেন যেমনভাবে তাঁর ভাঙা হাড় সেড়ে উঠবে ভেবেছিলেন কার্যক্ষেত্রে তা হয়নি। বিশ্বকাপে তিনি দেশের জন্য অবদান রাখতে চেয়েছিলেন। আপাতত তাঁর দেশে ফিরে গিয়ে চোট সাড়িয়ে পরবর্তী অধ্যায়ের জন্য অপেক্ষা করা ছাড়া গতি নেই। তিনি আরও জানান দল এখন খুব ভাল খেলছে এবং তিনি নিশ্চিত বিশ্বকাপের শেষ পর্যন্ত এরকমই খেলে যাবে। তাঁর আরোগ্যের জন্য কামনা করায় ভক্তদেরও তিনি ধন্যবাদ দেন।

এর আগে শিখর উর্দু কবি রাহাত ইন্দোরির একটি শায়েরির পঙক্তি পোস্ট করেছিলেন। যার মধ্য দিয়ে বার্তা দিয়েছিলেন তাঁর 'হসলঁ' বা মনোবল অটুট রয়েছে। আর সেই মনোবলের জোরেই তিনি এই বিশ্বকাপেই ফের ফিরতে চান।

তাঁর ঠেকনা হিসেবে আগেই ইংল্যান্ড উড়ে এসেছিলেন তরুণ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্য়ান ঋষভ পন্থ। শিখরের বিকল্প হিসেবে এদিন তাঁর নামই ঘোষণা করা হয়েছে।