আরও একটি ম্যাচ হেরে গেল ইংল্যান্ড। ক্রিকেটের জন্মদাতা দেশ হয়েও একবারও ক্রিকেট বিশ্বকাপ জিততে পারেনি ইংরেজরা। এইবার বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার আগে থেকে তাদেরই কাপ জেতার প্রধান দাবিদার ধরা হচ্ছিল। কিন্তু, অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গেও হেরে এখন শেষ চারে পৌঁছতে পারবে কিনা তারা, তাই নিয়েই সন্দেহ দেখা দিল।

প্রথমে ব্যাট করে অধিনায়ক ফিঞ্চের দুর্দান্ত শতরানে ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৮৫ রান তুলেছিল। জবাবে বেহরেনডর্ফের ৫ উইকেট আর মিচেল স্টার্কের ৪ উইকেটের দাপটে মাত্র ২২১ রানেই অলআউট হয়ে গেল ইংল্যান্ড। একমাত্র বেন স্টোকস ৮৯ রান করলেন। আর একজন ইংরেজ ব্যাটসম্যান ছাড়া কেউ ৩০ রানও করতে পারলেন না। ৩২ বল বাকি থাকতে ৬৪ রানে ম্য়াচ জিতে নিলল অস্ট্রেলিয়া। ম্যাচের সেরা হলেন ফিঞ্চ।

ফলে ৭ ম্যাচের মধ্যে ৬টি ম্যাচ জিতে ১২ পয়েন্ট নিয়ে প্রথম দল হিসেবে সেমিফাইনালে জায়গা পাকা করল অস্ট্রেলিয়া। অন্যদিকে ইংল্যান্ড ৭ ম্যাচে মাত্র ৪ জয় ও ৮ পয়েন্ট নিয়ে ইংল্যান্ড থেকে গেল চার নম্বরেই। সমসংখ্যক ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে ঘাড়ের উপর নিঃশ্বাস ফেলছে বাংলাদেশ। ৬ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে তার পরেই রয়েছে শ্রীলঙ্কা। ইংল্যান্ডের খেলা বাকি ভারত ও নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে। যারা এখনও অবধি টুর্নামেন্টে অপরাজিত। কাজেই অইন মর্গানদের সামনে লড়াইটা অনেক কঠিন।