বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়ে গিয়েছে আইসিসি বিশ্বকাপ ২০১৯। তবে বারতীয় ক্রিকেট ভক্তদের জন্য বিশ্বকাপ শুরু হচ্ছে ৫ জুন থেকে। ওই দিন দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু হবে ভারতের। তার আগে ভারতীয় সমর্থকদের মন জুড়ে এখন বিরাজ করছেন শুধুই ধোনি এমনকী তাঁকে কেন্দ্র করে টুইটারে এক নতুনব ট্রেন্ড চালু হয়েছে 'জেসিবি কি খুদাই'।

৩৭ বছর বয়সী এমএস ধোনির এটাই শেষ বিশ্বকাপ। সম্ভবত ভারতীয় দলের সঙ্গে লম্বা সময় কাটানোও এই শেষবার। কিন্তু কেরিয়াীরের সায়াহ্নে এসেও তাঁর জনপ্রিয়তায় এতটুকু ভাটা পড়েনি।

গত বছরটা খুব খারাপ কেটেছি ধোনির। কিন্তু চলতি বছরের শুরু থেকেই ফের ফর্মে তিনি। আইপিএল-এ নিজের দলের হয়ে সর্বোচ্চ রানও করেন। আর বিশ্বকাপের আগে প্রথম গা-ঘামানো ম্যাচে রান না পেলেও, দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ১১৩ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেছেন। ছয় মেরে শতরানে পৌঁছে উসকে দিয়েছেন ছয় মেরে ২০১১ সালের কাপ জেতানোর স্মৃতি।

আর তারপরই ধোনির সঙ্গে জেসিবি সংস্থার ভারী যন্ত্রাদির তুলনা শুরু হয়ে গিয়েছে। বলা হচ্ছে রাস্তায় জেসিবির দৈত্যাকার ষন্ট্রগুলিকে খোড়াখুড়ি বা অন্য কাজ করতে দেখলে যেমন আপনা থেকে লোক জড়ো হয়ে যায়, তেমন ধোনির ধোলাই এখনও চুম্বরেপ মতো মানুষকে টানে। আর তার থেকেই ধোনি বিষয়ে কথা বলতে গেলে #জেসিবি কি খুড়াই ব্যবহার করা হচ্ছে। এক ধোনি ভক্ত তো অনেক দূর এগিয়ে জেসিবি সংস্থার বিভিন্ন যন্ত্রের সঙ্গে ধোনির বিভিন্ন ছবি তুলনা করে পোস্ট করেছেন।

চলতি বিশ্বকাপে ধোনিই একমাত্র ক্রিকেটার যিনি অধিনায়ক হিসেবে আগে বিশ্বকাপ জিতেছেন। ভারত ছাড়ার আগে রবি শাস্ত্রী বলেছিলেন বিশ্বকাপে ধোনি খুব বড় ভূমিকা নেবেন। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অনুশীলন ম্যাচ যদি কোনও ইঙ্গিত দিয়ে থাকে, তাহলে বিশ্বকাপে কিন্তু দলগুলিকে 'ধোনি কি ধুলাই' থেকে সাবধান থাকতে হবে। তবে 'জেসিবি কি খুড়াই' -এর মতো ধোনির খেলা দেখতে ভারতের ম্যাচগুলিতে লোকের যে অভাব হবে না, তা নিশ্চিতভাবে বলা যায়।