মহেন্দ্র সিংহ ধোনি চাইলে আরও পাঁচ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে পারেন। আর কেউ নন, ধোনিকে এভাবেই দরাজ সার্টিফিকেট দিলেন কিংবদন্তি লেগ স্পিনার শেন ওয়ার্ন। ওয়ার্নের মতে, কবে অবসর নেবেন, সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার সেরা লোক ধোনি নিজেই। 

এবারের আইপিএল-এ যথেষ্ট ভাল ফর্মে ছিলেন ধোনি। নিজের দল চেন্নাই সুপার কিংগসের হয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন তিনি। একই ভাবে উইকেটের পিছনেও অনবদ্য ছিলেন মাহি। বয়স বাড়লেও তাঁর ক্ষিপ্রতা যে এতটুকু কমেনি, সেই প্রমাণ দিয়েছেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। 

ধোনিকে নিয়ে বিশ্বকাপ শুরুর আগে ওয়ার্ন তাই বলেছেন, "ভারতীয় ক্রিকেটের দুর্দান্ত সেবা করেছে এম এস ধোনি। ওর সবকিছুই ও ভারতীয় ক্রিকেটকে দিয়েছে। আমি তো ভাবতেই পারি না কীভাবে বিশ্বকাপের দলে ধোনির থাকা নিয়ে কিছু লোক প্রশ্ন তুলছিলেন!"

সাম্প্রতিক সময়ে নিজের ব্যাটিং স্টাইলে কিছুটা বদল এনেছেন ধোনি। ক্রিজে এসে সেট হওয়ার জন্য বেশ কিছুটা সময় নিচ্ছেন তিনি। কিন্তু পরবর্তী সময়ে আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে তা পুষিয়েও দিচ্ছেন। যদিও এই পরিকল্পনা নিয়ে ব্যাট করতে নেমে ধোনি ব্যর্থ হলেই সমালোচনায় মুখর হয়েছেন অনেকে। প্রাক্তন ক্রিকেটার থেকে সাধারণ সমর্থক, ধোনির ব্যাটিং নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন সবাই। মাঠেই অবশ্য তাঁর জবাব দিয়েছেন মাহি। 

বিশ্বকাপের পরেই ধোনি অবসর নেবেন বলেই জল্পনা চলছে। কিংবদন্তি অস্ট্রেলিয় লেগ স্পিনার অবশ্য বলছেন, "অবসর কবে নেবে, সেই সঠিক সময়টা একজন ক্রীড়াবিদ হিসেবে ধোনিই সবথেকে ভাল জানে। সেই সময়টা বিশ্বকাপের পরে, নাকি আরও পাঁচ বছর পরে, তার উত্তরও জানে ধোনিই। এমএস এতটাই ভাল একজন ক্রিকেটার যে ও যখন চাইবে তখনই অবসর নিতে পারে।"

এবারের আইপিএল-এও ১২ ইনিংসে মোট ৪১৬ রান করেছেন ধোনি। যা তাঁর সমালোচকদের চুপ করিয়ে দিয়েছে। আইপিএল-এর আগে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজেও সিরিজ সেরা হয়েছিলেন তিনি। স্বাভাবিকভাবেই এবারের বিশ্বকাপে তিনিই বিরাটের অন্যতম ভরসা। শুধু ব্যাটিং বা কিপিংয়ের জন্য নয়, ধোনির ক্রিকেট মস্তিষ্কও বিরাটদের অন্যতম ভরসার কারণ।