ইতিহাস গড়ল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেট দল। কিউইদের উড়িয়ে প্রথমবারের মতো অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠল তারা। বৃহস্পতিবার আকবর আলির নেতৃত্বে দক্ষিণ আফ্রিকার পটশেস্ট্রুম-এ দ্বিতীয় সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে তারা ৭ উইকেটে হারালো। ফলে রবিবার, ৯ ফেব্রুয়ারি ফাইনালে যশস্বীদের মোকাবিলা করতে হবে ১১ বাঙালির।

বৃহস্পতিবার টসে জিতে প্রথমে বোলিং-এর সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। কিউইদের মাত্র ২১২ রানের মধ্য়েই আটকে রেখেছিল বাংলাদেশি বোলাররা। এই সংক্ষিপ্ত স্কোর তাড়া করতে নেমে বাংলাদেশ প্রথম পাওয়ার প্লে-এর মধ্যেই ৩২ রানের ২ উইকেট হারিয়ে ধুকছিল। সেখান থেকে শক্তিশালী পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন মাহমুদুল হাসান জয় এবং তৌহিদ হিন্দয়। তৃতীয় উইকেটে ৬৮ রান যোগ করেন।

২৩ তম ওভারে হিন্দয় ৪০ রানে আউট হলেও, মাহমুদুল হাসান জয়-কে শতরানের আগে থামানো যায়নি। চাপের মুখে ১২৭ বলে ১৩ টি বাউন্ডারি মেরে তিনি ১০০ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন। হিন্দয়-এর পর তাঁকে যোগ্য সঙ্গত দেন শাহাদাত হোসেন। হাসানের সঙ্গে হাত মিলিয়ে চতুর্থ উইকেটে তিনি ১১১ রান যোগ করেন। হাসান ৪৩তম ওভারে আউট হয়ে যান। কিন্তু শাহাদাত শেষ অবধি থেকে বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত করে তবে মাঠ ছাড়েন। ৫১ বলে ৪০ করে অপরাজিত থাকেন তিনি।

দিনের শুরুতে, নিউজিল্যান্ড বাংলাদেশি পেসার শরিফুল ইসলাম শামিম হোসেন এবং হাসান মুরাদ-এর দাপটে মুশকিলে পড়েছিল। একমাত্র বেকহ্যাম হুইলার-গ্রিনাল'এর ৭৫ এবং নিকোলাস লিডস্টোন-এর ৪৪ ছাড়া কেউই বড় রান পাননি। সেইসঙ্গে নিউজিল্যান্ড নিয়মিত উইকেট হারায়।

মঙ্গলবার প্রথম সেমিফাইনালে ভারত চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে ১০ উইকেটে হারিয়ে সপ্তমবার ফাইনালে জায়গা পাকা করে।