ভারতীয় দলের এক নম্বর বোলার জসপ্রীত বুমরার চোট ও তাঁর ফিটনেস টেস্ট নিয়ে তৈরি হয়েছে জটিলতা। কিছুদিন আগেই খবর প্রকাশ হয় বুমরা ও হার্দিক দুই তারকাই এমনসিএতে তাদের রিহ্যাব করতে অস্বীকার করেছেন। তাঁরা নিজেদের মতই চোট প্রক্রিয়া থেকে মুক্ত হয়েছেন। বিশাখাপত্তনমে ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজ দ্বিতীয় একদিনের ম্যাচের আগে ভারতীয় দলের নেটে বোলিং করতে দেখা গেছে বুমরাকে। নিজের ফিটনেসের অবস্থা বুঝে নিতেই ভারতীয় দলের নেটে গিয়েছিলেন বুমরা। কিন্তু ভারতীয় দলে ফিরতে ন্যাশনাল ক্রিকেট অ্যাকাডেমির ছাড়পত্রের প্রয়োজন। এখন শোনা যাচ্ছে বুমরার ফিটনেস টেস্ট নিতে অস্বীকার করেছে এনসিএ। অনেকেই মনে করছেন যেহেতু বুমরা এনসিএতে রিহ্যাব করেননি তারই পাল্টা দিল ন্যাশনাল ক্রিকেট অ্যাকাডেমি। 

আরও পড়ুন - আগামী বছরও দিল্লি’র নেতৃত্বে শ্রেয়স আইয়ার, নিলাম শেষে ঘোষণা কর্ণধারের

পরিস্থিতি খারাপ দিকে যাচ্ছে দেখে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় আসরে নামতে চলেছেন। বুমরার ফিটনেস টেস্ট সংক্রান্ত বিষয়ে এনসিএ প্রধান রাহুল দ্রাবিড়ের সঙ্গে কথা বললেন তিনি। জানিয়েছেন মহারাজ। সৌরভ বলেছেন, ‘আমি কারণটা জানার চেষ্টা করব। আমি দু’মাস হল দায়িত্ব নিয়েছি। বুমরার যখন চোট লেগেছিল আমি ছিলাম না। তবে আমি এটা জানি ভারতীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের জায়গা এনসিএ। রাহুলের সঙ্গে আমি কয়েকবার কথা বলেছি। আরও বলব। যা সমস্যা আছে সেটা মিটিয়ে ফেলার চেষ্টা হচ্ছে। গোটা বিষয়টা আমি জানার চেষ্টা করব। ’

আরও পড়ুন - ২০১৯ সালের এক নম্বর সেলেব বিরাট কোহলি, হারালেন সলমন-অক্ষয়দের

বর্তমান ভারতীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে ন্যাশনাল ক্রিকেট অ্যাকাডেমি নিয়ে একটা বিরূপ প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে। ভারতীয় উইকেট কিপার ঋদ্ধিমান সাহা চোটের জন্য প্রায় এক বছর জাতীয় দলের বাইরে ছিলেন। সেই সময়ও ঋদ্ধির ভুল চিকিত্সার অভিযোগ উঠেছিল। তারপরও ছবি বদলায়নি। বুমরা ও হার্দিকও নিজেদের ফিট করে তুলতে এনসিএ’র সাহায্য নেননি। বুমরা ইংল্যান্ডের ডাক্তারের পরামমর্শেই ফিট হয়ে উঠছেন। নিজের ট্রেনারের কাছে অনুশীলন করছেন হার্দিকও। ন্যাশনলা ক্রিকেট অ্যাকাডেমির পরিকাঠামো ও পদ্ধিতি নিয়ে ভারতীয় ক্রিকেটাররা ক্ষুদ্ধ। তাই তারা সেখানে যেতে নারাজ। এখন দেখার দেশের সেরা ক্রিকেট অ্যাকাডেমিকে কত তারাতারি সঠিক পথে ফেরাতে পারেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও রাহুল দ্রাবিড়। 

আরও পড়ুন - ফুচকাওয়ালা থেকে কোটিপতি, ক্রিকেট বদলে দিল যশস্বীর জীবন