আসছে সেপ্টেম্বর থেকে বদল আসছে ভারতীয় ক্রিকেট জার্সি-তে। এতদিন ধরে বিরাট কোহলি এবং তাঁর ব্রিগেডকে নীল জার্সিতে দেখে সকলের চোখ সওয়া হয়ে গিয়েছিল। সেই জার্সিতে কিছুটা পরিবর্তন হবে সেপ্টেম্বরে। দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকেই এই পরিবর্তন আসার কথা। ভারতীয় নীল জার্সিতে 'ওপ্পো'-র পরিবর্তে 'বাইজুস' লেখা দেখা যাবে বলে সংবাদ সুত্রে জানা গিয়েছে। 

চিনের মোবাইল নির্মাণকারী কোম্পানি 'ওপ্পো' ভারতীয় জার্সিতে নিজের সমস্ত অধিকার হস্তান্তর করতে চলেছে ব্যাঙ্গালোরের একটি শিক্ষা সংস্থা 'বাইজুস'কে। ২০১৭ সালের মার্চে ১০৭৯ কোটি টাকা দিয়ে ভারতীয় জার্সিতে তাদের ব্র্যান্ড লোগো দেওয়ার অধিকার জিতেছিল 'ওপ্পো'। তাদের এই চুক্তির স্থায়িত্ব ছিল ৫ বছর। তাই হিসাব মত ২০২২-এ এই চুক্তি শেষ হওয়ার কথা। তবে তার আগেই নিজের চুক্তি থকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে এই চাইনিজ কোম্পানি। তারা জানিয়েছে ভারতীয় দলের সঙ্গে এই চুক্তি নানা কারণে অলাভদায়ক বলেই মনে হচ্ছে। কারণ ২০১৭-র চুক্তি অনুযায়ী প্রতি দ্বিপক্ষীয় ম্যাচে বিসিসিআই-কে ৪.৬ কোটি টাকা দিতে হয় তাদের। আইসিসি-র ক্ষেত্রে ম্যাচ প্রতি ১.৫৬ কোটি টাকা দিতে হয়। যা স্টার ইন্ডিয়া-র গত চুক্তির থেকে কয়েকগুণ বেশি।  তাই তারা  'বাইজুস'-কে নিজেদের জায়াগা ছেড়ে দিচ্ছে। 'বাইজুস' একটি কেরালার কোম্পানি। যার বর্তমান মুল্য প্রায় ৩৮০০ কোটি টাকা। তাই তাদের কোর্টেই এবার বল ঠেলে দিল এই চিনা সংস্থা।

 আসলে 'ওপ্পো' পুনরায় নিজস্ব চুক্তিতেই স্বাক্ষর করাতে চলেছে বাইজুস কে। যার মধ্যে বিসিসিআই কে দেওয়া মোট টাকার কিছু অংশ 'ওপ্পো' 'বাইজুস'-কে দেবে। দুই সপ্তাহ আগে থেকেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে তারা। ভারতীয় জার্সিতে 'ওপ্পো'-র লোগো শুধুমাত্র ভারতের ওয়েস্টইন্ডিজ সফর পর্যন্তই সীমিত। আগামী সেপ্টেম্বরে ভারতের দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকেই ভারতীয় জার্সিতে আসবে 'বাইজুস'-এর লোগো।  তবে বিসিসিআই জানিয়েছে তারা 'বাইজুস'- এর থেকেও  'ওপ্পো'-র সমপরিমাণ টাকাই নেবেন । তারা এক্ষেত্রে নিজেদের কোনও ক্ষতি করতে রাজি নন।