দেশ জুড়ে ক্রমেই বেড়ে চলেছে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে দেশে কবে থেকে স্পোর্টিং ইভেন্ট শুরু করা যাবে তা নিয়েও রয়েছে ধোঁয়াশা। শুধু তাই নয়, হয়ে যাওয়া খেলার পুরস্কার মূল্য পেতে প্লেয়ারদের হচ্ছে সমস্যা। তার মধ্য অন্যতম হল বাংলা ক্রিকেট দল। গত মরসুমে রঞ্জি ট্রফি রানার্স হয়েছিল বাংলা দল। য়ার পুরষ্কার মূল্য এক কোটি টাকা দেওয়ার কথা ছিল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের তরফে। কিন্তু করোনা পরিস্থিতি র জন্য  বিসিসিআই এখনও পর্যন্ত টাকা পাঠাতে পারেনি সিএবিতে। তবে বোর্ডর জন্য অপেক্ষা না করেই প্লেয়ারদের পাশে দাঁড়াল সিএবি।

আরও পড়ুনঃআইপিএলে অধিনায়ক হিসেবে রোহিত শর্মার সাফল্যের রহস্য জানালেন জয়াবর্ধনে

পরিস্থিতি বিচার করে ও প্লেয়ারদের কথা ভেবে বোর্ডের টাকা পাঠানোর অপেক্ষা করল না সিএবি।  পুরস্কার মূল্যের ১ কোটি টাকা ক্রিকেটারদের অ্যাকাউন্টে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিল বাংলার ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন। নিজেদের সঞ্চয় থেকেই সিএবি এই টাকা আপাতত ক্রিকেটারদের দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। বোর্ডের কাছ থেকে টাকা পেলে তা আবার কোষাগারে জমা করে দেওয়া হবে। বিপদের দিনে সিবির প্লেয়ারদের পাশে দাঁড়ানোর ভূমিকাক সাধুবাদ জানিয়েছে ক্রিকেট মহল। লকডাউনের বাজারে পুরস্কার মূল্য পাওয়ার খবরে খুশি বাংলা দলের ক্রিকেটাররাও। সিএবিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন সকলেই।

আরও পড়ুনঃপাকিস্তানে ক্রিকেট দলে করোনার থাবা,আক্রান্ত তিন ক্রিকেটার

আরও পড়ুনঃদক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেটে করোনার থাবা,আক্রান্ত একসঙ্গে ৭ জন

এই বিষয়ে সিএবি সভাপতি  অভিষেক ডালমিয়া জানিয়েছেন, বোর্ডের অপেক্ষা না করেই আমরা ক্রিকেটারদের পুরস্কার মূল্য মিটিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বিসিসিআইকেও এই বিষয়ে জানানো হয়েছে। পরে টাকা আসলে তা কোষাগারে রেখে দেওয়া হবে।  প্রয়োজনীয় স্বাক্ষর সংক্রান্ত প্রক্রিয়া মিটে গেলেই ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ক্রিকেটারদের অ্যাকাউন্টে টাকা পৌঁছে যাবে। ডালমিয়া এও জানিয়েছেন যে, আশা করছেন এই সপ্তাহেই বিসিসিআই তাদের কাছে পাঠিয়ে দেবে পুরস্কার মূল্য।