এবার আইনি সমস্যায় জড়ালেন ভারতের প্রাক্তন তারকা ক্রিকেটার যুবরাড সিং। 'জাতি বিদ্বেষী' মন্তব্য করার অভিযোগ বিশ্বকাপ জয়ী ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে। ঘটনায় হরিয়ানার হিসার থানায় অভিযোগ দায়ের করলেন এক ব্যক্তি। একইসঙ্গ যুবরাজর বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় মামলা রুজুও করেছেন অভিযোগকারী। ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর পর তেমন কোনও সমস্যায় জড়ায়নি যুবরাজের নাম। যদিও এই আইনি সমস্যা নিয়ে এখনও কোনও মুখ খোলেননি যুবরাজ সিং। 

ঘটনার সূত্রপাত ২০২০ সালের জুন মাসে। ইনস্টাগ্রামে রোহিত শর্মার সঙ্গে আড্ডা দেওয়ার সময় যুজবেন্দ্র চাহালের টিকটক ভিডিয়ো বানানোর প্রসঙ্গে কথা বলছিলেন যুবরাজ। তখনই চহালকে ঠাট্টা করে জাতপাত তুলে কিছু বলেন তিনি। যুবরাজের সেই মন্তব্য নিয়ে সেই সময়ও বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। পরবর্তীতে সোশ্যাল মিডিয়ায় দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা চেয়েছিলেন যুবরাজ। তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছিলেন,'আমি জাতি, ধর্ম, বর্ণ বা লিঙ্গের ব্যাপারে কোনও রকম ভেদাভেদে বিশ্বাস করি না। মানুষের ভালর জন্যে সারাজীবন কাজ করেছি। বুঝতে পেরেছি আমার কথায় কিছু মানুষের খারাপ লেগেছে। যদি অনিচ্ছাকৃত ভাবে কাউকে আঘাত করে থাকি তার জন্যে ক্ষমা চাইছি।'

 

 

এই ঘটনাতেই এবার মামলা দায়ের করলেন রজত কলসন নামে এক ব্যক্তি। যুবরাজের বিরুদ্ধে আইপিসির ১৫৩, ১৫৩এ, ২৯৫, ৫০৫ ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। অভিযোগকারীর দাবি, যুবরাজের মত তারকারা প্রকাশ্যে দলিতদের নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য করলে তা সমাজে গভীর প্রভাব ফেলে। দলিতরা তাদের সম্মান রক্ষা ও অধিকার রক্ষার আন্দোলনে আরও পিছিয়ে পড়ে। এই একাধিক মামলার প্রেক্ষিতে যুবরজা সিং এখন কী ব্যবস্থা নেন সেটাই দেখার।