ভারতের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির প্রয়াণে ইতিমধ্যেই শোকস্তব্ধ ভারত। শুধুমাত্র রাজনৈতিক মহলেই নয় ক্রীড়া ক্ষেত্রেও খেলোয়াড়দের সঙ্গে যথেষ্ট হৃদ্যতার সম্পর্ক ছিল তাঁর। তাই তাঁর প্রয়াণে শোকের ছায়া ক্রিকেট মহলেও। প্রাক্তন থেকে বর্তমান বহু ক্রিকেটার নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় টুইট করে জানিয়েছেন তাঁদের শোকবার্তা। ওই দলে রয়েছেন অনিল কুম্বলে, বিরেন্দ্র সেহওয়াগ থেকে শুরু করে গৌতম গম্ভীরও। 

প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী তথা বিজেপি সাংসদ-এর  প্রয়াণ প্রসঙ্গে গৌতম গম্ভীর টুইট করে বলেছেন, বাবা আমাদের কথা বলতে শেখায় কিন্তু একটি পিতৃস্থানীয় ব্যক্তি শেখায় কিভাবে কথা বলতে হয়। বাবা হাঁটতে শেখায় আমাদের কিন্তু একজন পিতৃস্থানীয় ব্যক্তি শেখায় এগিয়ে যেতে। ঠিক তেমন ভাবেই এক বাবা তাঁর সন্তানকে নাম দেয় কিন্তু এক পিতৃস্থানীয় ব্যক্তি সাহায্য করে নিজের পরিচয় বানাতে। তাই তিনি লিখেছেন যে অরুণ জেটলি তাঁর পিতৃস্থানীয় ছিলেন। তাঁর প্রয়াণে  শোকস্তব্ধ গম্ভীর। 

প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর প্রয়াণে শোক প্রকাশ করেছেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার অনিল কুম্বলেও। তিনি নিজের টুইটে লিখেছেন, শ্রী অরুণ জেটলির প্রয়াণে তিনি গভীরভাবে শোকাহত। তিনি জানিয়েছেন ক্রিকেট সংক্রান্ত কথাবার্তাও হতো তাঁর সঙ্গে, প্রত্যেকটি মাঠেই সমান ভাবে নিজের অবদান রাখে গেছেন অরুণ জেটলি। তাঁর পরিবারকে সমবেদনা জানিয়ে নিজের শোকবার্তা শেষ করেছেন প্রাক্তন এই ক্রিকেটার। 

জেটলি স্মরণে বাদ পরেননি ভারতীয় দলের প্রাক্তন ক্রিকেটার বিরেন্দ্র সেহওয়াগও। সোশ্যাল সাইটে টুইট করে তিনি বলেছেন, অরুণ জেটলির প্রয়াণে তিনি শোকাচ্ছন্ন। সাধারন মানুষকে সাহায্য করার সঙ্গে সঙ্গে ক্রিকেটেও নিজের যথেষ্ট অবদান রেখে গিয়েছেন তিনি। তাঁর সাহায্যেই দিল্লির বহু ক্রিকেটার দেশের হয়ে ক্রিকেট খেলতে পেরেছেন। তিনি এটাও বলেছেন যে একসময় দিল্লির ক্রিকেটারদের দলে খেলার সুযোগ দেওয়া হত না। তবে ডিডিসিএ তে তাঁর প্রতিনিধিত্বের পর থেকেই অনেক খেলোয়াড় এমনকী তিনি নিজেও জাতীয় দলে খেলার সুযোগ পান।  প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে কাটানো ব্যক্তিগত মুহূর্তগুলিও মনে করেছেন সেহওয়াগ এবং অরুণ জেটলির পরিবার ও বন্ধুদের সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি।

শোকবার্তা জানিয়ে টুইট করেছেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার ভিভিএস লক্ষণ। সঙ্গে তাঁর পরিবার, বন্ধু ও অনুগামীদের সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি।