আইপিএলের ১৩ তম মরসুম শুরুর আগে আর কত পরীতক্ষা দিতে দবে ধোনির চেন্নাই সুপার কিংসকে তা বুঝতে পারছেন না কেউই। প্রথমে দলের দুই প্লেয়ার সহ ১৩ জনের করোনা আক্রান্ত হওয়া, তারপর হঠাৎ আইপিএল না খেলার সিদ্ধান্ত নিলেন দলের সহ অধিনায়ক ও অন্যতম তারকা প্লেয়ার সুরেশ রায়না। এবার ফের ধাক্কা সিএসকে শিবিরে। আইপিএল ২০২০ না খেলারসিদ্ধান্ত নিলেন তারকা অফ স্পিনার হরভজন সিং। সুরেশ রায়না, লাসিথ মালিঙ্গা ও তারপর হরভজন সিং। এবারের আইপিএলে ক্রিকেট প্রেমিরা বঞ্চিত হতে চলেছে তিন তরকা ক্রিকেটারের খেলা দেখা থেকে।

আরও পড়ুনঃআইএসএলে নতুন দল নেওয়ার জন্য বিড ওপেন করলো এফএসডিএল, স্বস্তির নিঃশ্বাস ইস্টবেঙ্গল ভক্তদের

হরভজন সিংকে নিয়ে বেশ কিছু দিন ধরেই ধন্দে ছিলেন সিএসকে টিং ম্যানেজমেন্ট। কারণ আরব আমিরশাহি আসার আগে চেন্নাইতে যে অনুশীলন শিবিরের আয়োজন করেছিল সিএসকে সেখানে যোগ দেননি হরভজন। তখন হরভজন জানিয়েছিলেন ব্যক্তিগত কারণেই অনুশীলন শিবিরে যোগ দিতে পারবেন না তিনি। পরে আরবে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন। কিন্তু দল আরব পৌছানোর পর থেকে আর কোনওরকম যোগাযোগ করেনি হরভজ। যার ফলে তারকা অফ স্পিনারকে নিয়ে বাড়ছিল জল্পনা। অবশেষে চেন্নাই টিম ম্যানেজমেন্টকে নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানান হরভজন সিং। ব্যক্তিগত কারণে এ বছরের আইপিএল অংশ নেবেন না তিনি। 

আরও পড়ুনঃজানুন ভারতীয় ক্রিকেটারদের 'ডান্সার' বউদের সম্পর্কে, যাদের নাচ দেখে 'বোল্ড আউট' সকলেই

আরও পড়ুনঃমা হওয়ার একমাসের মধ্যেই হট অবতারে নতাসা,নেট দুনিয়ায় ধরালেন আগুন

গত দুই বছর ধরে চেন্নাই দলের সঙ্গে আছেন ৪০ বছরের ভাজ্জি। আপাতত তিনি নিজের পরিবারের সঙ্গে পঞ্জাবের জলন্ধরে আছেন তিনি। এক সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া বিবৃতিতে হরভজন সিং জানান যে, তিনি চেন্নাই সুপার কিংসের ম্যানেজমেন্টকে নিজের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছেন। ব্যক্তিগত কারণে এই কঠিন সময়ে তিনি ব্রেক নিচ্ছেন বলে জানান আইপিএলের তৃতীয় সফল বোলার। সকলকে তাঁর প্রাইভেসি সম্মান জানাতে আর্জি জানিয়েছেন ভাজ্জি। তবে দলের একের পর এক তারকা প্লেয়ার আইপিএল না খেলার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় চাপ বাড়ছে সিএসকে শিবিরে। তবে সমর্থকদের শেষ আশা ভরসা সেই একজন ঘিরে। সমর্থদকদের বক্তব্যা,'যাই হোক না কেন, ধোনি হ্যায় তো মমুকিন হ্যায়'।