একের পর এক ধাক্কার পর অবশেষে স্বস্তির খবর চেন্নাই সুপার কিংস শিবিরে। ২ ভারতীয় ক্রিকেটার সহ মোট ১৩ জন যারা করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন তাদের সদ্য করা করোনা টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। অর্থাৎ ধোনির দলের সকলেই করোনা মুক্ত হয়েছেন। এই খবর  প্রকাশ্যে আসার পরই অনেকটাই স্বস্তি ফিরেছে চেন্নাই সুপার কিংস শিবিরে। এই খবর জানার পর শুধু দলের প্লেয়ার বা সাপোর্টিং স্টাফাই নয়, স্বস্তি পেয়েছেন তাদেপ পরিবারের সদস্য থেকে শুরু করে বিসিসিআই কর্তারা। এই কটা দিন খুবই উদ্বিগ্ন ছিলেন সকলেই। 

আরও পড়ুনঃসৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে দলে ফেরানোর জন্য সরব হয়েছিলেন প্রণববাবু,জানুন সেই কাহিনি

গত ২৮ অগাস্ট দলের ক্রিকেটার দীপক চাহার সহ মোট ১২ জন সিএসকে সদস্যের করোনা টেস্ট রিপোর্ট পজেটিভ এসেছিল। বাকি সদস্যরা ছিলেন সাপোর্টিং স্টাফ আর মিডিয়া টিমের সদস্য। পরে দলের আরও এক ক্রিকেটার ঋতুরাজ গায়কোয়াড়ও করোনা বাইরাসে আক্রান্ত হন।  এই খবর প্রকাশ্যে আসার পরই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। বিধ্বস্ত হয়ে পড়ে সিএসকে শিবির। এরপরই আইপিএল না খেলে দেশের ফেরার সিদ্ধান্ত নেন চেন্নাই সুপার কিংসের অন্যতম তারকা ক্রিকেটার সুরেশ রায়না। তার আইপিএল না খেলার কারণ নিয়েও বিস্তর জল ঘোলা হয়। অবশেষে সকলের করোনা রিপোর্ট বেগেটিভ আসায় স্বাভাবিক ছন্দে ফিরছে সিএসকে।

আরও পড়ুনঃরোহিত শর্মা,হরভজন থেকে লারা, তারকা ক্রিকেটারদের বিতর্কিত ছবি, যা ঝড় তুলেছিল নেট দুনিয়ায়

আরও পড়ুনঃ৮০০ কোটি টাকার মালিক,সেই ধোনিরও বাজারে রয়েছে ১৮০০ টাকার দেনা,গল্প নয় সত্যি

তবে নি.ম অনুযায়ী এখনও সকলকে পুরোপুরি করোনা মুক্ত বলে ঘোষণা করা হচ্ছে না। সোমবার সকলের করোনা পরীক্ষা করা হয় সেই পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছে। বৃহস্পতিবার ফের সকলের আরও একবার কোভিড ১৯ টেস্ট করা হবে। সেই পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এলেই সকলকে সরকারিভাবে করোনা মুক্ত বলে ঘোষণা করা হবে। ফলে বৃহস্পতিবারের ফল নেগেটিভ এলেই ৫ সেপ্টেম্বর থেকে অনুশীলন শুরু করতে পারবে ধোনির দল। ফের আইপিএলে স্বাভাবিক স্রোতে ফিরবে ৩ বারের চ্যাম্পিয়নরা।