আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে শনিবার সহজে জয় পায়নি ভারত। ভারতের ২২৪ রানের লক্ষ্যমাত্রা প্রায় তাড়া করে ফেলেছিল আফগানিস্তান। চুড়ান্ত উত্তেজনাকর ম্যাচে একেবারে শেষ ওভারে হ্যাটট্রিক করে ভারতকে জেতান মহম্মদ শামি। ম্যাচের উত্তেজনা গ্রাস করেছিল বিরাট কোহলিকে। শনিবার বেশ কয়েকবার তাঁকে আগ্রাসীভাবে আউটের আবেদন করতে দেখা গিয়েছিল।

শনিবারের ভারত-আফগানিস্তান ম্য়াচে ম্য়াচ রেফারি ছিলেন ক্রিস ব্রড। অতীতে বেশ ক.য়েকটি ঘটনায় দেখা গিয়েছে তাঁকে ভারতের বিরুদ্ধে অতি সক্রিয় ভূমিকা নিতে। ফলে বিরাটের উপর তাঁর শাস্তির খাঁড়া নেমে আসতে পারে, এমন আশঙ্কাই করা হয়েছিল। আর তাই সত্যি হল।

রবিবার জানানো হল, অতিরিক্ত আবেদনের জন্য বিরাট কোহলির ম্যাচ ফি০এর ২৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে। ক্রিকেটার ও সাপোর্ট স্টাফদের জন্য আইসিসির যে 'আচরণ বিধি' রয়েছে তার আর্টিকল ২.১ লঙ্ঘন করেছেন বিরাট বলে জানানো হয়েছে আইসিসির তরফ থেকে।

আফগান ইনিংস চলার সময়ে ২৯তম ওভারে একটি এলবিডব্লুর আবেদন নিয়ে বিরাট কোহলিকে আম্পায়ার আলিম দারের দিকে বেশ আগ্রাসী ভাবে এগিয়ে আসতে দেখা গিয়েছিল। শুধু তাই নয়, আউট না দেওয়ায় মাঠেই অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন তিনি। আইসিসি আরও জানিয়েছে, কোহলি তাঁর অপরাধ ও তার সাজা দুইই মেনে নিয়েছেন, তাই আর এই নিয়ে শুনানির প্রয়োজন হবে না।

শুধু জরিমানাই নয়, সেই সঙ্গে একটি ডিমেরিট পয়েন্টও পেতে হয়েছে কোহলিকে। ২০১৬ সালে ক্রিকেটের আচরণ বিধি সংশোধনের পর থেকে এই নিয়ে কোহলির খাতায় দুটি ডিমেরিট পয়েন্ট জমা হল। ২০১৮ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রিটোরিয়া টেস্টে প্রথম ডিমেরিট পয়েন্টটি পেয়েছিলেন কোহলি।