Asianet News BanglaAsianet News Bangla

বর্ণবিদ্বেষের শিকার হার্দিক, নাতাশা-কে জড়িয়ে সোশ্যাল মিডিয়া কুৎসিত মিম-এর প্লাবন

সদ্য বাগদানের কথা ঘোষণা করেছেন হার্দিক পাণ্ডিয়া। সার্বিয়ান অভিনেত্রী নাতাশা স্ট্যানকোভিচ-এর সঙ্গে বাধা পড়েচেন তিনি। সোশ্য়াল মিডিয়ায় দুজনের গায়ের রঙের পার্থক্য় নিয়ে কথা উঠল। তৈরি হল কুৎসিত মিম।

 

Fans Annoyed as Social Media Trolls Hardik Pandya over Skin Color on His Engagement
Author
Kolkata, First Published Jan 3, 2020, 10:33 AM IST

বছরের প্রথম দিনই ভারতীয় অলরাউন্ডার হার্দিক পাণ্ডিয়ার এনগেজমেন্টের খবর নিয়ে মেতেছিল ভারতীয় ক্রিকেট ভক্তরা। কিন্তু একটা দিন যেতে না যেতেই কুৎসিত আক্রমণের শিকার হতে হল এই তারকা অলরাউন্ডারকে। বছরের প্রথম দিনে সার্বিয়ান অভিনেত্রী নাতাশা স্ট্যানকোভিচ-এর সঙ্গে তাঁর বাগদানের কথা ঘোষণা করেছিলেন। এবার সোশ্যাল মিডিয়ার একাংশ তাঁকে ট্রোল করল তাঁর ও স্ট্যানকোভিচ-এর গায়ের রঙ নিয়ে।

হার্দিক পাণ্ডিয়ার গায়ের রঙ কালো, আর সার্বিয়ান নাতাশা-র গায়ের রঙ সাদা। এই বিষয়টি নিয়ে তাঁদের এই খুশির মুহূর্তটি  বিষিয়ে দিল সোশ্যাল মিডিয়ায় এই অংশ। উপহার দিল বর্ণবিদ্বেষী এবং চূড়ান্ত অবমাননাকর কিছু মন্তব্য। কেউ বলেছে, 'আমরা কুৎসিত নই, আমরা দরিদ্রমাত্র'। রয়েছে বর্ণবিদ্বেষী মিম। বিপরীত বর্ণের মিষ্টি এবং খাদ্যের পদের ছববি দিয়েও তাদের গায়ের রঙের পার্থক্যের দিকে কুৎসিত ইঙ্গিত করা হয়েছে।

মনোবিদরা বলছেন, এই সমস্ত পোস্টগুলি সাদা চামড়ার প্রতি ভারতীয়দের লালসারই প্রতিফলন। ত্বকের রঙকে ভারতীয়রা এখন ককতখানি সৌন্দর্যের সংজ্ঞা হিসেবে বিচার করে তারই প্রতিচ্ছবি। তবে একটাই ভালো বিষয়, এই সব ট্রোলিং-এর জবাব হার্দিককে নিজে দিতে হয়নি। তাঁর হয়ে এই কাজটা করে দিয়েছেন, তাঁর ভক্তরাই। টুইটারে তাঁরা এইরকম নিচু মানসিকতা ঠেকাতে নেটিজেনদের তাঁরা, মানুষের গায়ের রঙ এবং অর্থের বাইরে তাঁর গুণ দিয়েই দেখার অনুরোধ জানিয়েছেন।

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios