১৯৯৬ সালের ২০ জুন ইংল্যান্ডের লর্ডসে অভিষেক হয়েছিল বেহালার বাঁ-হাতি তরুণ সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে অভিষেক টেস্টে সেঞ্চুরি করে নিজের জাত চিনিয়েছিলেন ডাকাবুকো সৌরভ। সেদিনের ১৩১ রানের ইনিংস জন্ম দিয়েছিল ভারতীয় ক্রিকেটে এক লড়াকু যোদ্ধাকে৷ তারপরটা ইতিহাস। ভারতীয় তথা বিশ্ব ক্রিকেটকে শাসন করেছেন সৌরভ। শুধু ব্যাটসম্যান নয়, অধিনায়ক হিসেবে ভারতীয় ক্রিকেটকে পৌছে দিয়েছিলেন উন্নতির শিখরে। বিদেশের মাটিতে টেস্ট জয় থেকে চোখে চোখে রেখে লড়াই। ন্যাটওয়েস্ট ট্রফি জয়ের পর লর্ডসের গ্যালারিতে শার্ট উড়িয়ে ফ্লিনটফকে ঔদ্ধত্যের জবাব। দলকে বিশ্বকাপের ফাইনালে তোলার পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টেস্ট সিরিজ ড্র। সবকিছুই শিখিয়েছিলেন প্রিন্স অফ ক্যালকাটা। ভারত তথা বিশ্ব ক্রিকেটর অন্যতম সফল ব্যাটসম্যানের পাশাপাশি হয়ে উঠেছেন  অন্যতম সেরা অধিনায়কও। ৪৯ টেস্ট ও ১৪৬ একদিনের ম্যাচেদেশকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। বর্তমানে তিনি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্টও। সাফল্যের সঙ্গে সামলাচ্ছেন গুরু দায়িত্ব। সেই সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের কাছ থেকেই যদি নেতা হওয়ার টিপস পাওয়া যায়, তাহলে তো আর কিছু বলারই থাকে না।

আরও পড়ুনঃবন্ধ থুতুর ব্যবহার,বোলারদের সমস্যার সমাধান রয়েছে ২২ গজেই,মন্তব্য কুম্বলের

আরও পড়ুনঃবাবা হওয়ার সুখবরের দিন কয়েকর মধ্যে ফের বিতর্কে হার্দিক পাণ্ডিয়া

লকডাউনে এক অনলাইন সেশনে যোগ দিয়েছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। সেখানেই আদর্শ নেতা হওয়ার টিপস দেন  বাংলার মহারাজ। সৌরভ বলেন,'নেতা হিসেবে দক্ষতার মধ্যে অন্যতম প্রধান হল মানিয়ে নেওয়া। দলের সদস্যদের সহজাত প্রতিভা যেন বিকশিত হয়, লক্ষ্য রাখতে হবে সে দিকে। মনে রাখতে হবে যে, রাহুল দ্রাবিড়ের কাছে যুবরাজ সিংহের মতো আচরণ আশা করা যায় না, বা এর উল্টোটাও সম্ভব নয়।' এছড়াও ওই অনলাইন সেশনে বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট বলেছেন,'ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে যাওয়াই যে আদর্শ নেতার কাজ। পৃথিবীর সব বড় বড় অধিনায়কই ভুল করেছেন। কিন্তু তার ভুল থেকে শিক্ষা নিয়েছে, ভবিষ্যতের জন্য। পাাশাপাশি যতক্ষণ উদ্দেশ্য ঠিক রয়েছে। ততক্ষণ সবকিছুই মেনে নেওয়া যায়। নিজের ভুল থেকে শিক্ষা নিতে হবে। আর সেগুলো পিছনে ফেলে এগিয়ে যেতে হবে। তবেই নিজেকে আরও ভাল নেতা হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব। পরাজয় যেন পিছনে টানতে না পারে। বেড়ে ওঠার অঙ্গ ওগুলো। ব্যর্থতা থেকে নেওয়া শিক্ষাই সাফল্যের পথে পরিচালিত করে।' প্রাক্তন ভারত অধিনায়ের কাছ থেকে এই সকল টিপস পেয়ে আপ্লুত সকলে। সবাই যে ক্রিকেটার হবে তা নয়, জীবনের যেকোনও কিছুই ক্ষেত্রেই এই বিষয়গুলি কাজে লাগবে বলে জানিয়ছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

আরও পড়ুনঃকেরালায় গর্ভবতী হাতির মৃত্যুর ঘটনায় নিন্দায় সরব দুই ভারত অধিনায়ক