চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রতিপক্ষকে তাদের সামনে দাঁড়াতেই দেয়নি ভারতীয় মহিলা দল। সে অস্ট্রেলিয়াই হোক কিংবা শ্রীলঙ্কা, ভারতীয় খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্সের সামনে মাথা তুলে দাঁড়াতে পারেনি কেউই। একপেশে ভাবে গ্রূপ পর্বের সমস্ত ম্যাচ জিতে সেমিফাইনালে পৌঁছেছে তারা। কিন্তু তাদের এখনও অবধি এই অসাধারণ দৌড় পুরোপুরি অর্থহীন হয়ে পড়বে যদি না তারা সেমির গন্ডি টপকাতে পারেন। সেমিতে সামনে ইংল্যান্ড, বিশ্বকাপে যাদের বিরুদ্ধে রেকর্ড একেবারেই স্বস্তি দেবে না ভারতকে। 

গ্রূপ পর্বে অসাধারণ পারফরম্যান্স করলেও একটি বিষয় চিন্তায় রাখবে ভারতকে। এখনও অবধি একটি দল হিসাবে নিজেদের সেরাটি দিতে পারেননি ভারত। ভারতের সেমিফাইনালে উঠার পেছনে সবচেয়ে বড় কারণ কিছু ক্রিকেটারের দুর্দান্ত ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স। পুনম যাদব, শেফালি ভার্মা বা দীপ্তি শর্মাদের ব্যক্তিগত নৈপুণ্য অনেক ক্ষেত্রেই জয় এনে দিয়েছে ভারতকে। কিন্ত অধিনায়ক সহ অনেক ক্রিকেটারের এখনো অফফর্মে থাকা চিন্তায় রাখবে ভারতকে। 

এই বিষয়টা নিয়ে অধিনায়ক হরমনপ্রীত কউর ও চিন্তিত। সাংবাদিক সম্মেলনে এসে তিনি জানিয়েছেন এখনও তাদের অনেক জায়গায় উন্নতি করতে হবে। কিন্তু তা কতটা সম্ভব হবে তা নিয়ে সন্দিহান অনেকেই। বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড মহিলা দল কোনোদিনই ছেড়ে কথা বলেনি ভারতকে। শেষ মহিলা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সেমিফাইনাল থেকেই ভারতকে ছিটকে দিয়েছিল ইংল্যান্ড। ২০১৭ ওয়ান-ডে বিশ্বকাপেও ভারতকে ফাইনালে হার মানতে হয়েছিল ইংল্যান্ডের কাছে। এখনও পর্যন্ত ভারতীয় দল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ৫ বার মুখোমুখি হয়েছিল ভারতীয় দলের। এর মধ্যে একবারও জিততে পারেনি তারা। ফলে ভারতের সামনে অপেক্ষা করছে কঠিন পরীক্ষা তা বলাই বাহুল্য। 

ব্যক্তিগত পরিসরে টুর্নামেন্টের সেরা ব্যাটসম্যানদের একজন, শেফালি ভার্মার মুখোমুখি হবে টুর্নামেন্টের সেরা বোলারদের একজন, সোফিয়া একলেস্টোন। টুর্নামেন্টে এখনো অবধি ৮ উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী তিনি। অপরদিকে শেফালি টুর্নামেন্টে এখনো অবধি তৃতীয় সর্বোচ্চ রানসংগ্রাহক। তার সংগ্রহ ৪ ম্যাচে ১৬১ রান। তাদের সাক্ষাৎ ম্যাচের উত্তেজনা আরো বাড়বে। তার মধ্যে থাকছে বৃষ্টির ভ্রূকুটিও। বৃষ্টিতে ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়ে গেলে চলতি টুর্নামেন্টে বেশি ভালো পারফরম্যান্স করার জন্য ম্যাচের বিজয়ী ঘোষণা করা হবে ভারতকেই।