আজ আবুধাবিতে আইপিএলের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হতে চলেছে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ও চেন্নাই সুপার কিংস। শক্তির বিচারে ম্যাচে কিছুটা রোহিত শর্মার দল এগিয়ে থাকলেও, মরুদেশে সিএসকের বিরুদ্ধে মুম্বইয়ের রেকর্ড কিন্তু একেবারেই আশাব্যাঞ্জক নয়। ২০১৪ সালে ভারতে লোকসভা নির্বাচনের কারণে আইপিএলের প্রথম পর্বের কিছু ম্যাচ আরব আমিরশাহিতে খেলা হয়েছিল। ২৫ এপ্রিল ২০১৪, দুবাইতে ধোনির সিএসকের মুখোমুখি হয়েছিল রোহিত শর্মার মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। সেই ম্যাচে মুম্বইকে সাত উইকেটে হারয়ে বড় জয় পেয়েছিল চেন্নাই।

আরও পড়ুনঃআজ আইপিএলের প্রথম ম্যাচ, জেনে নিন আবু ধাবির পিচ রিপোর্ট কি বলছে

ম্যাচের প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৪১ রান করেছিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫০ রান করেছিলেন অধিনায়ক রোহিত শর্মা। কিন্তু চেন্নাইয়ের আঁটোসাটো বোলিংয়ের কাছে তেমনভাবে দাঁড়াতে পারেনি আর কোনও মুম্বইয়ের ব্যাটসম্যান। চেন্নাইয়ের হয়ে মোহিত শর্মা সর্বোচ্চ ৪টি উইকেট নিয়েছিলেন। জবাবে রান করতে নেমে ব্র্যান্ডন ম্যাকালের ঝড়ো ৫৩ বলে ৭১ রানের ইনিংসের সৌজন্যে এক ওভার বাকি থাকতেই সাত উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় সিএসকে। ম্যাকালাম ছাড়া ডোয়েন স্মিথ ২৯, ডুপ্লেসি ২০ ও ধোনি অপারিজত ১৪ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। ১৯ ওভারেই ৩ উইকেট হারিয়ে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নিয়েছিল সিএসকে। 

আরও পড়ুনঃআইপিএলে ধোনির ভিন্ন ধারার ৫টি রেকর্ড, প্রথম ম্যাচের আগে যা জানতেই হবে আপনাকে

আরও পড়ুনঃনামে নয়,কাজেও অধিনায়ক, জেনে নিন মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে রোহিতের এমন কিছু রেকর্ড

আরবের মাটিতে শুধু ধোনির দলের বিরুদ্ধেই মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের রেকর্ড খারাপ,তেমনটা নয়। ২০১৪ সালে আরবে মোট ৫ টি ম্যাচ খেলেছিল রোহিত শর্মার দল। যার মধ্যে চারটিতেই হারতে হয়েছিল তাদের। ফলে আরব আমির শাহির স্মৃতি খুব একটা সুখকর নয় মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের। যদিও অতীত নিয়ে ভাবতে রাজি নয় মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। তার দল যে এবার পুরোপুরি তৈরি সেকথা জানিয়ে দিয়েছেন সেনাপতি হিটম্যান। অপরদিকে ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি ঘটাতে তৎপর ধোনির চেন্নাই সুপার কিংসে। ফলে ২০২০ সালে আইপিএলের প্রথম ম্য়াচে মেগা ডুয়েল দেখার অপেক্ষায় গোটা ক্রিকেট বিশ্ব।