অ্যাডিলেডে পিঙ্ক বল টেস্টে লজ্জার হারের সম্মুখীন হতে হয়েছে ভারতীয় দলকে। দ্বিতীয় ইনিংস মাত্র ৩৬ রানে শেষ হয় কোহলির দলের ইনিংস। যা টেস্ট ক্রিকেটে ভারতের  সর্বনিম্ন স্কোর। দ্বিতীয় টেস্ট থেকে দলের সঙ্গে না থাকলেও, হতাশ বিরাট কোহলি। এই অসহায় আত্মসমর্পন মেনে নিতে পারছেন না বলেও জানিয়েছেন ভিকে। এই সবকিছুর মধ্যে আরও এক বিরাট ধাক্কা খেল ভারতীয় দল। চোটের কারণে সিরিজের বাইরে চলে গেলেন ভৃতারকা পেসার মহম্মদ শামি।

অ্যাডিলেডে টেস্টের তৃতীয় দিনে আগুন ঝড়িয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার পেস বোলাররা। দ্বিতীয় ইনিংসে ২১.২ ওভারে অস্ট্রেলিয়ার পেসার প্যাট কামিন্সের বল এসে লাগে মহম্মদ শামির ডানহাতে।  মাঠেই যন্ত্রণায় ছটফট করতে থাকেন শামি। দলের তিকিৎসক মাঠে নেমে প্রাথমিক চিকিৎসাও করেন। প্রাথমিক চিকিৎসার পর ব্যাট করার চেষ্টা করলেও, পারেননি শামি। বাধ্য হয়েই মাঠ ছাড়তে হয় ভারতীয় পেসারকে। পরে স্ক্যান রিপোর্টে জানা যায় মহম্মদ শামির হাতের হাডড় ভেঙেছে। যার ফলে সিরিজের বাকি তিনটি ম্যাচে খেলতে পারবেন না মহম্মদ শামি।

এমনিতেই প্রথম টেস্টে লজ্জার হার। তারমধ্যে আগামি টেস্ট থেকে দলের সঙ্গে থাকবেন না বিরাট কোহলি। পিতৃত্বকালীন ছুটিতে দেশে ফিরছেন বিরাট। এই পরিস্থিতিতে মহম্মদ শামিরও দল থেকে ছিটকে যাওয়া বড় ধাক্কা বলেই মনে করছেনন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা। শামির ছিটকে যাওয়া ভারতের কাছে ধাক্কা বলে মেনে নিয়েছেন অজি পেসার হ্যাজেলউডও। ফলে বক্সিং ডে টেস্টের আগে ভারতীয় দলের সমস্যা আরও বাড়ল এবিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই।