ভারতীয় পেসার মহম্মদ শামির ভিসা অনির্দিষ্ট কালের জন্য বাতিল করেছিল মুম্বাইয়ের আমেরিকান দূতাবাস। যার জেরে আসন্ন ওয়েস্টইন্ডিজ সফরে শামির আমেরিকা যাওয়া অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল। পরে বিষয়টিকে সামাল দেয় ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের সিইও রাহুল জোহর। 

 বিখ্য়াত বোলারের স্ত্রী হাসিন জাহান, গত বছর তাঁর বিরুদ্ধে পণ প্রথা ও যৌন হয়রানির অভিযোগ এনেছিলেন। তার জেরে ৪৯৮'এ' এবং ৩৫৪'এ' ধারা অনুযায়ী কলকাতা পুলিশের থেকে চার্জ শিট পেয়েছিলেন এই ভারতীয় পেসার। তখনই ভীষণভাবে এই নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছিল। কোর্টে আজও চলছে সেই মামলা। তারপর কিছু সময়ের জন্য থামলেও আবারও সেই  ঘটনাকে উসকে দিল ইউএস দূতাবাস।
  
যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় ৩রা ও ৪ঠা অগাস্ট ওয়েস্টইন্ডিজ-এর বিরুদ্ধে টি২০ ম্যাচ খেলতে চলেছে ভারত। তাই তার আগে মুম্বাইয়ের আমেরিকান দূতাবাসের অফিসে ভারতীয় ক্রিকেটারদের ভিসার জন্য আবেদন করেছিল বিসিসিআই।  তবে পুলিশ ভেরিফিকেশন রেকর্ড অসম্পূর্ণ থাকার জন্য় বায়মেট্রিক এবং ইন্টারভিউ-এর পরেও তারা শামি-র ভিসা বাতিল করে এবং জানায়, কোর্টে পারিবারিক মামলা চলছে এমন কাউকে তারা ভিসা দিতে পারবে না। পরে বিসিসিআই-এর সিইও রাহুল জোহরি ব্যক্তিগতভাবে কথা বলেন যুক্তরাষ্ট্রের কনস্যুলেট জেনারেল-এর সঙ্গে। এবং তাকে আশ্বস্ত করেন শামির ঝামেলাটা পারিবারিক যা অনেকদিন ধরেই চলছে। তবে এটার সঙ্গে বোর্ডের কোনও সম্পর্ক নেই।  তিনি বলেন, সদ্য সমাপ্ত বিশ্বকাপেও ভারতীয় দলে খেলেছিলেন শামি। সেক্ষেত্রে কোনও সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়নি দলকে। শেষে জোহরি কথা দেন, শামি এমন কোনও  ঘটনা ঘটবেন না যাতে আমেরিকার সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক খারাপ হয়। বোর্ডের সিইও-র সঙ্গে কথা বলার পরেই  মহম্মদ শামি-কে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়।