গত বছর একদিনের ক্রিকেট বিশ্বকাপের পর থেকে সমানে চলছে এমএস ধোনির অবসর নিয়ে জল্পনা। টি২০ বিশ্বকাপের আগ দিয়ে যা আরও বেড়েছে। এবার প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের অবসর নিয়ে সেই জল্পনা আরও বাড়ালেন ভারতের প্রধান কোচ রবি শাস্ত্রী। এক সাক্ষাতকারে শাস্ত্রী দাবি করেছেন, শিঘ্রই ধোনি তাঁর ওয়ানডে কেরিয়ারে ইতি টানতে পারেন। তবে এরপরও অক্টোবরে টি২০ বিশ্বকাপের ভারতীয় দলে ঢোকার লড়াইয়ে থাকবেন ধোনি, এমনটাই জানিয়েছেন তিনি।

শাস্ত্রী জানিয়েছেন এই বিষয়ে তাঁর সঙ্গে ধোনির কথা হয়েছে। সেই কথোপকথন এতদিন তাঁদের দুজনের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকলেও এইবার ভারতের প্রধান কোচ তা সংবাদমাধ্যমের কাছে ফাঁস করে দিয়েছেন। তিনি জানান, ইতিমধ্যেই ধোনি তাঁর টেস্ট কেরিয়ার শেষ করেছেন। খুব শীগগিরই তাঁর ওয়ানডে কেরিয়ার শেষ হতে পারে।

তবে রবি শাস্ত্রী এও জানিয়েছেন, অস্ট্রেলিয়ায় আয়োজিত টি২০ বিশ্বকাপের দলে ঢুকতে গেলে এমএস ধোনিকে এইবারের আইপিএল-এ ভালো পারফরম্যান্স করতে হবে। ধোনির এখন যে বয়সে এসে পৌঁছেছেন, তাতে তাঁর পক্ষে একমাত্র টি২০ ক্রিকেট খেলাই সম্ভব বলে জানিয়েছেন শাস্ত্রী। দীর্ঘদিনই ক্রিকেট মাঠে নেই ধোনি। তাই আইপিএল খেলার সময় তাঁর শরীর কতটা সাড়া দেয় তার উপর অনেক কিছুই নির্ভর করছে।

ভারতের প্রধান কোচ আরও জানিয়েছেন, ধোনি অবশ্যই আইপিএল খেলবেন। তবে যদি তিনি আশানুরূপ খেলতে না পারেন, তাহলে তিনি নিজেই সরে যাবেন সেই বিষয়েও শাস্ত্রী নিশ্চিত। দলের বোঝা কখনই হবেন না ধোনি। তবে যদি আইপিএল-এ আগের ফর্মে দেখা য়ায় ধোনি-কে তবে অনেককিছুই হতে পারে বলে জল্পনা ভাসিয়ে দিয়েছেন শাস্ত্রী।

গত প্রায় দুই বছর ধরে ধোনির দুর্বল ফর্ম এবং মন্থর ব্যাটিংয়ের জন্য লাগাতার তাঁর সমালোচনা হয়েছে। ২০১৯ সালের জুলাই মাসে বিশ্বকাপ ক্রিকেটের সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হেরে ভারতের বিদায় নেওয়ার পর থেকে জাতীয় দলের জার্সিতে ক্রিকেট মাঠে নামতে দেখা যায়নি এমএস ধোনি-কে। আর তিনি শেষ টি২০ ক্রিকেট খেলেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে বেঙ্গালুরুতে।