১৯৯৬ সালের লর্ডস। ভারত বনাম ইংল্যান্ড টেস্ট। প্রতিকুল পরিস্থিতিতে অভিষেক হয়েছিল বেহালার 'ডাকাবুকো' বাঁ-হাতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের। তারপরেরটা ইতিহাস। ক্রিকেট বিশ্ব দেখেছিল ইংল্যান্ডের পেস অ্যাটাককে সামলে কীভাবে অভিষেক টেস্ট সেঞ্চুরির বীর গাঁথা। একইসঙ্গে বুঝিয়ে দিয়েছিলেন ক্রিকেট বিশ্ব আবির্ভাব ঘটেছে 'মহারাজের'। ২৫ বছর পর সেই লর্ডসেই অভিষেক টেস্টে সেঞ্চুরি করে ইতিহাসের পাতায় নাম লেখালেন আরও এক বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান নিউজিল্যান্ডের ডেভন কনওয়ে।

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে লর্ডসে প্রথম টেস্টে নিউজিল্যান্ডের জার্সিতে অভিষেক হয় ওপেনার ডেভন কনওয়ের। টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। ওপেন করতে নেমে এক দিক থেকে টম ল্যাথাম, কেন উইলিয়ামসন, রস টেলররা আউট হয়ে গেলেও নিজের ইনিংস চালিয়ে যান কনওয়ে। ব্রড, অ্যান্ডারসন, উড, রবিনসনদের সামলে গড়তে থাকেন নিজের ইনিংস। ধৈর্যশীল ব্য়াটিংয়ের উদাহরণ দেন কনওয়ে। বেশ কিছু অনবদ্য শট খেলে নিজের শতরান পূরণ করেন তিনি। দিনের শেষে ১৩৬ রানে নট আউট থাকেন কনওয়ে। আর তাকে যোগ্য সঙ্গত দিয়ে ৪৬ রানে নট আউট হেনরি নিকোলস। 

১৯৯৬ সালে অভিষেক টেস্টে লর্ডসে ১৩১ রান করেছিলেন সৌরভ। প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের ১৩১ রান ছিল ইংরেজ ও সফরকারী ব্যাটসম্যানদের মধ্যে লর্ডসে অভিষেকে সর্বোচ্চ রানের ইনিংস । অর্থাৎ সৌরভের রেকর্ড ভেঙে দিলেন কনওয়ে। কিউই তারকা তৃতীয় বিদেশী হিসেবে অভিষেক টেস্টে ক্রিকেটের মক্কায় শতরান করলেন। ১৮৯৩ সালে অস্ট্রেলিয়ার হ্যারি গ্রাহাম, ১৯৯৬ সালে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, ২০২১ সালে ডেভন কনওয়ে। লর্ডসে মোট ৬ ব্যাটসম্য়ান অভিষেক টেস্টে সেঞ্চুরি করেছেন, গ্রাহাম, সৌরভ ও কনওয়ে ছাড়া অপর তিন ব্যাটসম্যান হল ইংল্যান্ডের। তারা হলেন জন হ্যাম্পশায়ার, অ্যান্ড্রু স্ট্রস ও ম্যাট প্রায়র।