ওয়ান ডে সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতেছে অস্ট্রিলিয়া। টি২০ সিরিজে ঘুড়ে দাঁড়িয়ে ২-১ ব্যবধানে ট্রফি জিতে নেয় টিম ইন্ডিয়া। এবার লড়াই টেস্টের। বর্ডার-গাভাস্কর ট্রফি ঘিরে সবসময় একটা আলাদা উন্মাদনা বা উত্তেজনা থাকে। এবার তার ব্যতিক্রম নয়।১৭ তারিখ পিঙ্ক বল টেস্ট দিয়ে শুরু হচ্ছে সিরিজ। তবে এবার দুই দলেই রয়েছে বেশ কিছু চোট আঘাত জনিত সমস্যা। অস্ট্রেলিয়া দল যেমন প্রথম টেস্টে পাচ্ছে না দলের তারকা ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারকে। ভারতীয় দলে আবার জোড়া ধাক্কা। কোহলির দল পাচ্ছে না ব্যাটিং ও বোলিংয়ের অন্যতম দুই প্রধান অস্ত্র রোহিত শর্মা ও ইশান্ত শর্মাকে। ফলে দুই দলের প্রথম একাদশ নিয়ে চলছে নানা জল্পনা।

এই পরিস্থিতিতে ভারতীয় দলের অস্বস্তি একটু বেশি। কারণ রোহিতের মত ব্যাটসম্যান টিমে না থাকার মানে চাপ বাড়বে অন্যান্যদের উপর। আর অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে তারউপর দিন-রাতের টেস্টে বল যেখানে বেশি সুইং ও সিম করবে সেখানে ইশান্তের না থাকা বড় ধাক্কা। দলের ব্যাটিংয়ে একাধিক অপশন থাকলেও, ইশান্তের জায়গায় কাকে খেলানো হবে তা নিয়ে বিপক্ষকে ধন্দে রাখার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ম্যাচের আগে সেই পরিকল্পনা ভেস্তে দিলেন স্বয়ং ভারতীয় কোচ রবি শাস্ত্রী। প্রাক্তন অজি কিংবদন্তী ইয়ান চ্যাপেল জানিয়েছেন,রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে তিনি কয়েকদিন আগে মদ্যপান করছিলেন। তখনই রবি তাঁকে বলেন যে খুব সম্ভবত উমেশকে খেলাবেন তাঁরা। প্রস্তুতি ম্যাচেও নজর কেড়েছেন উমেশ। তাই স্বভাবতই জসপ্রীত বুমরা ও মহম্মদ শামির সঙ্গে তাঁর নামই বিবেচনা করছে ভারত। 

এছাড়াও ইয়ান চ্যাপেল বলেন,অ্যাডিলেডে গোলাপি বল যে ভালোই সিম ও সুইং করবে সে বিষয় নিশ্চিত ইয়ান। তাঁর মতে প্রথম ইনিংসে যে দল ৩০০ করতে পারবে, তারা খুব সম্ভবত ম্যাচ  জিতবে। বুমরা, শামি ও উমেশকে নিয়েই ভারতীয় দলও যে ম্যাচ জেতার বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী সেকথাও ইয়ান চ্যাপেলকে শাস্ত্রী জানিয়েছেন। ফলে শাস্ত্রী এহেন আচরণে ম্যাচের আগে কতটা সমস্যায় পড়বে ভারতীয় দল তার উত্তর তো ভবিষ্যৎ দেবে। তবে মদ্যপান করতে দলের স্ট্র্যাটেজি প্রকাশ করে দেওয়ায়, শাস্ত্রীর ভূমিকা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।