অভিমন্যু ঈশ্বরণের অধিনায়কত্বে শেষবার গতবার রঞ্জি ট্রফির ফাইনালে খেলেছে বাংলা দল। ব্যাট হাতেও ঘরোয়া ক্রিকেটে একটানা রান করার পর সুযোগ পেয়েছেন  ভারতীয় এ দলে। শ্রীলঙ্কা সফরে গিয়ে করেছেন ডবল সেঞ্চুরি। এবার বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ও ইংল্যান্ড সফরের যে ভারতীয় দল ঘোষণা হয়েছে, তাতে স্ট্যান্ডবাই ক্রিকেটার হিসেবে জায়গা পেয়েছেন বাংলার অভিমন্যু। ক্রিকেট কেরিয়ারের টার্নিং পয়েন্টে দাঁড়িয়ে কী ভাবছেন, করোনা পরিস্থিতিতে কীভাবে নিজেকে তৈরি রাখছেন সবকিছু নিয়ে এশিয়ানেট নিউজ বাংলার সিনিয়র এডিটর দেবজ্যোতি চক্রবর্তীর সঙ্গে খোলামেলা আড্ডায় অভিমন্যু ঈশ্বরণ।

এশিয়ানেট নিউজ বাংলাঃ বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ও ইংল্যান্ড সফরে ভারতীয় দলে স্ট্যান্ডবাই ক্রিকেটার হিসেবে সুযোগ পেয়েছেন,নিজেকে কীভাবে তৈরি রাখছেন?
অভিমন্যু ঈশ্বরণঃ প্রথমত সুযোগ পেয়ে খুব খুশি। সবার প্রথম মানসিক প্রস্তুতির জন্য যেগুলি দরকার তারউপর কাজ শুরু করে দিয়েছি। মানসিকভাবে আমি প্রস্তুতও রয়েছি। আর ফিজিক্যাল ট্রেনিং যেগুলি ওখানে কাজে দিতে পারে সেগুলির ট্রেনিং আমি শুরু করে দিয়েছি। 

এশিয়ানেট নিউজ বাংলাঃ কোনও সিনিয়র ক্রিকেটারের সঙ্গে কথা বলেছেন, কোনও স্পেশাল টিপস পেয়েছেন ইংল্যান্ড সফর নিয়ে?
অভিমন্যু ঈশ্বরণঃ না এখনও তেমন কোনও সিনিয়র ক্রিকেটারের সঙ্গে কতা হয়নি। আমার কোচের সঙ্গে কথা হয়েছে, তিনি ও আমি কথা বলে প্ল্যানিং করে যেগুলি ঠিক করেছি সেই হিসেবেই অনুশীলন চালিয়ে যাচ্ছি।

এশিয়ানেট নিউজ বাংলাঃ করোনার ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি নিজেকে কীভাবে সুরক্ষিত রাখছেন ও তারমধ্যে ট্রেনিং করছেন?
অভিমন্যু ঈশ্বরণঃ আমি এই মুহূর্তে বাড়িতেই আছি। আর আমার বাবার একটি ক্রিকেট অ্যাকাডেমি রয়েছে। সম্পূর্ণ রেসিডেনসিয়াল এলেকায়। বাইরের কেউ ওখানে আসেনা। আমি ওই অ্যাকাডেমিতে যাচ্ছি ট্রেনিং করছি আর বাড়িতে ফিরে আসছি। এর বাইরে কিছু করছি না।

এশিয়ানেট নিউজ বাংলাঃ রঞ্জি ট্রফিতে গতবার আপনার নেতৃত্বে দল ফাইনালে উঠেছিল, এবার রঞ্জি নিয়ে কোনও পরিকল্পনা করেছেন?
অভিমন্যু ঈশ্বরণঃ এই মুহূর্তে ভারতীয় দলের সঙ্গে ইংল্যান্ড সফর নিয়েই ভাবছি ও সেটা নিয়ে কাজ করছি। রঞ্জি ট্রফি নিয়ে এই মুহুর্তে কোনও পরিকল্পনা নেই। রঞ্জি ট্রফি কবে থেকে শুরু হবে এখনও তেমন কোনও তারিখ সামনে আসেনি, ঘোষণা হওয়ার পর সেটা নিয়ে প্রিপারেশন শুরু হবে।

এশিয়ানেট নিউজ বাংলাঃ বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতীয় দলের সঙ্গে দীর্ঘ সময় থাকাটা তোমার কেরিয়ারে কতটা সাহায্য করবে বলে আপনার মনে হয়?
অভিমন্যু ঈশ্বরণঃ দীর্ঘ সফর। প্রায় ডিসেম্বরের ১৬ তারিখ পর্যন্ত। ওয়াল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল। বিশ্বকাপের মতোই। এখন থেকেই একটা অনেক বালো ফিলিংস আসছে। আর এই সফরটা আমার ভবিষ্যতের জন্য অনেক অভিজ্ঞতা ও আত্মবিশ্বাস বাড়াবে। 

এশিয়ানেট নিউজ বাংলাঃ যদি খলার সুযোগ আসে কতটা তৈরি আপনি?
অভিমন্যু ঈশ্বরণঃ যদিও খেলার সুযোগ আসে আমি পুরোপরি তৈরি। মানসিকভাবে আমি প্রস্তুত। পুরো পরিকল্পনামফিক ট্রেনিং করছেন। সুযোগ পেলে নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করব।