ভারতের প্রধান কোচের পদে আবেদন করলেন রবিন সিং। আর তারপরই বর্তমান কোচ রবি শাস্ত্রীকে একহাত নিলেন তিনি। ফাঁকা আওয়াজ নয়, একেবারে পরিসংখ্যান তুলে কোচ হিসেবে তাঁর যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিলেন ভারতের প্রাক্তন এই অলরাউন্ডার।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাতকারে রবিন সিং বলেছেন, বর্তমান কোচের অধীনে ভারত পর পর দুটি একদিনের ক্রিকেটের বিশঅবকাপের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছে। শুধু তাই নয়, টি২০আই বিশ্বকাপেও সেই শেষ চারেই থেমে গিয়েছে ভারতের দৌড়।

২০১৫ সালের সেমিফাইনালে ভারত অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে পরাজিত হয়। আর ২০১৯ বিশ্বকাপে গ্রুপ স্তরে ভাল খেলেও সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে হেরে বিদায় নেয় কোহলির দল। দুই ক্ষেত্রেই কোচের আসনে ছিলেন শাস্ত্রী। এরপরই সমর্থকরা শাস্ত্রী বিদায়ের আওয়াজ তুলেছেন। আপাতত শাস্ত্রী ও তাঁর দলের ওয়েস্টইন্ডিজ সফর পর্যন্ত মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। সেই সঙ্গে নতুন কোচের জন্য আবেদনপত্র নেওয়া হচ্ছে।

২০২৩ বিশ্বকাপের প্রস্তুতি এখন থেকেই শুরু করছে ভারত। তাই এখনই রবি  শাস্ত্রীকে সরিয়ে নতুন কোচ আনার সময় বলে মন্তব্য করেন রবিন সিং। রবিন সিং ছাড়াও গ্যারি কার্স্টেন, বীরেন্দ্র সেওয়াগের মতো অনেকেই ভারতের কোচের হটসিটে বসার জন্য আবেদন করেছেন। এর আগে ২০০৭ থেকে ২০০৯ সালের মধ্যে ভারতীয় দলের সঙ্গে ফিল্ডিং কোচ হিসেবে কাজ করেছেন রবিন। সেই সময় ভারত ইংল্যান্ডের মাটিতে একটি টেস্ট সিরিজ জিতেছিল। দক্ষিণ আফ্রিকায় জিতেছিল টি২০ বিশ্বকাপ। এছাড়া অস্ট্রেলিয়ায় প্রথমবার ত্রিদেশীয় একদিনেরক সিরিজেও চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল।