১৯৮৯ সাল। ভারতের পাকিস্তান সফর, ১৫ নভেম্বর থেকে শুরু হল প্রথম টেস্ট। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের মঞ্চে পা রেখেছিলেন দুই তরুণ ক্রিকেটার। পাকিস্তানের ফাস্ট বোলার ওয়াকার ইউনিস ও ভারতের ১৬ বছরের বালক সচিন রমেশ তেন্ডুলকর। প্রথম টেস্টে ওয়াকারের বলেই আউট হয়েছিলেন সচিন। তবে প্রথম ইনিংসে তাঁর ব্যাট জানান দিয়েছিল তিনি আর সাধারণ ব্যাটসম্যান নন। দ্বিতীয় টেস্ট থেকেই সেটা প্রমাণ করে দিলেন মাস্টার ব্লাস্টার। আর তারপর যা যা হয়েছে সেটা ভারতীয় ক্রিকেট প্রেমীদের মনে একটা বড় জায়গা করে নিয়েছে। 

আরও দেখুন - সচিন জামানার ৩০ বছর, ইডেন গার্ডেন্সে সেলিব্রেশন ভক্তদের

এমন দিনে সচিন  কি আর চুপ করে বসে থাকতে পারেন। আবার হাতে তুলে নিলেন ব্যাট। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ২২ গজে নয়। ইন্ডোরে ব্যাট হাতে নকিং শুরু করলেন মাস্টার ব্লাস্টার। আর ভিডিও শুরু সময় একটাই কথা, আমি যে জিনিসটা করতে সব থেকে বেশি ভালবাসি। 

 

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

This is something that I love doing the most!🏏

A post shared by Sachin Tendulkar (@sachintendulkar) on Nov 14, 2019 at 9:08pm PST

 

আরও পড়ুন - ৩৩য়ে পা দিলেন সানিয়া মির্জা, টেনিস সুন্দরীর বিশেষ মুহূর্তের এক ঝলক

তিনি এখন ক্রিকেট খেলেন না। তবে ক্রিকেট থেকে দুরে থাকা তাঁর পক্ষে সম্ভব নয়। তাই ক্রিকেট নিয়ে এখনও নানান কথা উঠে আসে সচিনের মুখ থেকে। কিছুদিন আগে একদিনের ক্রিকেটকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে সেটাকে দুটি ইনিংসে ভাগ করে দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন মাস্টার ব্লাস্টার। তবে বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে একটাই আক্ষেপ সচিনের। এখন ভাল মানের বোলার উঠে আসছে না। ভারতীয় দল ছাড়া আর কোনও দলের পেস বোলিং সে ভাবে ব্যাটসম্যানদের চাপে ফেরতে পারছে না। 

আরও পড়ুন - আইলিগের ঢাকে কাঠি, কলকাতায় প্রথম বড় ম্যাচ ২২ ডিসেম্বর