শুরু হয়ে গেছে আইএসএল। এবার আইলিগের ঢাকে কাঠি পরে গেল। বৃহস্পতিবার আইলিগে অংশগ্রহণকারী ক্লাব গুলির সঙ্গে বৈঠক করে সম্প্রচারকারী চ্যানেলের নাম সরকারা ভাবে ঘোষণা করল সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন। আগামী তিনটি আইলিগ সম্প্রচার করা হবে ডি স্পোর্টসে। আটটি ক্যামেরায় সম্প্রচার করা হবে আইলিগ, দেখানো হবে ১১০টি ম্যাচই। বৃহস্পতিবারের বৈঠকে আইলিগের প্রয়া সব ক্লাবই উপস্থিত ছিল। নভেম্বরের ৩০ তারিখ থেকে শুরু হচ্ছে এবারের আইলিগ। 

আরও দেখুন - সচিন জামানার ৩০ বছর, ইডেন গার্ডেন্সে সেলিব্রেশন ভক্তদের

সম্প্রচারকারী চ্যানেলের নাম ঘোষণার পাশাপাশি বৃহস্পতিবারের বৈঠকে লিগের খসরা সূচি নিয়েও আলোচনা করা হয়েছে। কয়েকটি ম্যাচ নিয়ে সমস্যায় কথা জানিয়েছিল ক্লাবগুলি। সেই দাবি মেনে তাদের ম্যাচের সূচিতে কিছুটা বদলের আশ্বাস দিয়েছে ফেডারেশন। কলকাতার ক্লাব গুলির মধ্যে প্রথম দিনই নামছে মোহনবাগান। অ্যাওয়ে ম্যাচে আইজল এফসির মুখোমুখি হবে তারা। ৩ ডিসেম্বর মাঠে নামের কথা ইস্টবেঙ্গলের। প্রতিপক্ষ রিয়াল কাশ্মীর। এই ম্যাচটি ঘরের মাঠে খেলতে চেয়েছিল লাল হলুদ ব্রিগেড। কিন্তু সেই বিষয়ে এখনও চুড়ান্ত সম্মতি দেয়নি ফেডারেশন। ইস্টবেঙ্গল মাঠের কয়েকটি বিষয়ে আপত্তি রয়েছে তাদের। গত বারের আইলিগ চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই সিটি এফসি প্রথম ম্যাচ খেলবে ডিসেম্বরের এক তারিখ। ঘরের মাঠে তাদের প্রতিপক্ষ টারু এফসি। 

আরও পড়ুন - ইনজুরি টাইমের গোলে মানরক্ষা, বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বে আবার ড্র ভারতের

খসরা সূচিতে কলকাতার প্রথম বড় ম্যাচ হওয়ার কথা ২২ ডিসেম্বর বিকেল ৫টা থেকে। সেই ম্যাচটি হতে চলছে মোহনবাগানের হোম ম্যাচ। লিগের ফিরতি ডার্বি হওয়ার কথা ১৫ মার্চ।  খসরা সূচিতে ইস্টবেঙ্গল ও মোহনবাগান, দুই দলের হোম গ্রাউন্ড দেখানো হয়েছে যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনকে। কিন্তু সেটা কতটা বস্তবায়িত হবে তা নিয়ে একটা প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। শোনা যাচ্ছে যুবভারতীতে ম্যাচ আয়োজনের জন্য অনেক বেশি টাকা খরচ করতে হয় ক্লাব গুলিকে। তাই ইস্টবেঙ্গল ডার্বি ছাড়া নিজেদের হোম ম্যাচ কল্যাণী স্টেডিয়ামে খেলতে চাইছে। এমন ভাবনা চিন্তার কথা শোনা যাচ্ছে সবজু মেরুন শিবির থেকেও। যদিও এখনও চুড়ান্ত করে কিছু জানায়নি কলকাতার দুই প্রধান। খসরা ক্রীড়া সূচির সমস্যা মিটিয়ে আগামী সপ্তাহেই লিগের পূর্ণাঙ্গ সূচি ঘোষণা করতে পারে ভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন। পাশাপাশি শ্রীনগের গিয়ে খলতে রাজি হয়েছে সব দলই। 

আরও পড়ুন - নকলে ছেয়ে গেছে কলকাতার ‘খেলার বাজার’ কেস ফাইল করে তদন্তে ইডি