করোনার থাবার বিধ্বস্ত গোটা দেশ। সংক্রমণ ও মৃত্যু মিছিলে কিছুতেই লাগামা টানা যাচ্ছে না। ক্রীড়া জগতেও থাবা বসিয়েছে মারণ ভাইরাস। সোমবারই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেটার ও মুম্বই ইন্ডিয়ান্স তারকা পীযুষ চাওলার বাবা। সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেউ বাবার প্রয়াণের খবর জানিয়েছিলেন তারকা ক্রিকেটার। বাবাই যে প্রধান শক্তি ছিল সেই কথাও জানিয়েছেন পীযুষ চাওলা। পীযুষের বাবার মৃত্যু খুবই ব্যথিত করেছে সচিন তেন্ডুলকরকেও।

একসময় ভারতীয় দলে একসঙ্গে খেলেছেন পীযুষ ও সচিন। পীযুষের বাবা প্রমোদ কুমার চাওলার মৃত্যুর খবর পেয়ে শোক প্রকাশ করেছেন সচিন তেন্ডুলকর। সোশ্যাল মিডিয়ায় পীযূষ ও তাঁর পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন মাস্টার ব্লাস্টার। লিখেছেন,'পীযূষের বাবার মৃত্যুর খবর পেয়ে মন ভারাক্রান্ত হয়ে গিয়েছে। ওঁর আত্মার শান্তি কামনা করি। এই কঠিন সময় পীযূষের এবং ওর পরিবারের প্রতি সমবেদনা রইল ।' এমনতিও দেশ জুড়ে যে মৃত্যু মিছিল চলছে তাও ব্যথিত করেছে সচিনকে। এত মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না তিনি।

 

 

বিগত কয়েক দিনে একাধিক ক্রিকেটার হারিয়েছেন তাদের প্রিয় জনকে। ভারতীয় মহিলা দলের ক্রিকোটার বেদা কৃষ্ণামূর্তি ২ সপ্তাহের ব্যবধানে হারিয়েছেন নিজের মা ও বোনকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় বেদাও দিয়েছিলেন আবেগঘন পোস্ট। গত রবিবার করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হয়ে  আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালস দলের ক্রিকেটার চেতন সাকারিয়ার বাবা। করোনার বিরুদ্ধে লড়াই এগিয়ে এসেছেন ক্রিকেটাররা। সচিন তেন্ডুলকর নিজেও আক্রান্ত হয়েছিলেন। ১ কোটি টাকার অনুদান দিয়েছেন মাস্টার ব্লাস্টার।