তাদের মধ্যে কে সেরা তা নিয়ে তর্ক কম হয়নি দুই কংবদন্তীর ক্রিকেট কেরিয়ারে। ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর পরও সেই তর্কে মেতে ওঠেন অনেকেই। তবে দুজন অন্তরঙ্গ বন্ধু। একজন মাস্টার ব্লাস্টার সচিন তেন্ডুলকর, অপর জন ক্রিকেটের রাজপুত্র ব্রায়ান চার্লস লারা। ক্রিকেটের সর্বকালের সেরা অন্যতম দুই ব্যাটসম্যানের নাম জানতে চাইলে ক্রিকেটবিশ্বের প্রায় প্রত্যেকেই একযোগে সচিন ও লারান নাম নেবেন। সম্প্রতি রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজে একে অপরের বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছিলেন দুই বন্ধু। সেখানেও দুই বন্ধু একসঙ্গে ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছিলেন। এবার আরও একবার সচিন-লারার বন্ধুত্ব দেখল ক্রিকেট বিশ্ব।

আরও পড়ুনঃগত দশ বছরে আইসিসি খুব সফলভাবে ক্রিকেটকে শেষ করছে,মন্তব্য শোয়েব আখতারের

সম্প্রতি ব্যাট হাতে ছেলের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছিলেন ব্রায়ান লারা। ভিডিওতে দেখা গিয়েছিল ঘরে ব্যাটিং প্র্যাকটিস করছেন লারার ছেলে। তাকে ব্যাট ধরার কায়দা অর্থাৎ ব্যাটিং গ্রিপ পাল্টাতে বললেও, তাতে রাজি নয় জুনিয়র লারা। সেই ভিডিও দেখেন ক্রিকেটের অপর কিংবদন্তী সচিন তেন্ডুলকর। লারার ছেলের ব্যাটিং গ্রিপ দেখে নিজের ছোট বেলার কথা মনে পড়ে যায় সচিনের। সচিনের ছোট বেলার ব্যাটিং গ্রিপের সঙ্গে অনেকটা মিল রয়েছে জুনিয়র লারার। তাই দেরি না করে লারার ছেলের ছবির সঙ্গে নিজের ছোট বেলার একটি ব্যাট হাতে ছবি একসঙ্গে করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন মাস্টার ব্লাস্টার। 

 

 

আরও পড়ুনঃকর মকুব না হলে বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব কেড়ে নিতে পারে, বিসিসিআইকে হুঁশিয়ারী আইসিসির

আরও পড়ুনঃগোলাপী বলে ভারতের বিরুদ্ধে আগুন ঝড়াতে মুখিয়ে রয়েছেন মিচেল স্টার্ক

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবিটি পোস্ট করার পাশাপাশি প্রিয় বন্ধুর উদ্দেশ্যে বার্তা দিতেও ভোলেননি ছোটে নবাব। ছবিটি পোস্ট করে মজার ছলে লারাকে সচিন লেখেন,'লারা, আমি এমন একটা ছেলের কথা জানি যার গ্রিপও একই রকম ছিল। আর সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খুব একটা বাজে করেনি।' সচিনের পোস্ট দেখে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন ক্রিকেটের রাজপুত্রও। লারা লেখেন,'আমি যাচাই করেছি ও দেখতে পাচ্ছি। আর হ্যা বিশ্বের সেরা বোলাররা তোমার তলোয়ারের দার অনুভব করেছিল। পরামর্শের জন্য ধন্যবাদ।' দুই কিংবদন্তী তথা দুই প্রিয় বন্ধু সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তালাপ উপভোগ করছেন নেটিজেনরা।