ব্যাটিং কোচের পদে তাঁকে কেন রাখা হল না? এই প্রশ্ন তুলে ভারতীয় দলের অন্যতম নির্বাচক দেবাং গান্ধীর সঙ্গে নাকি ঝগড়া করেছেন প্রাক্তন ব্যাটিং কোচ সঞ্জয় বাঙ্গার। সুত্রের খবর ভারতীয় দলের ক্যারেবিয়ান সফরের শেষ দিকে নাকি ঘটেছে এমনই ঘটনা। ভারতীয় দলের নতুন সাপোর্ট স্টাফেদের জন্য ইন্টারভিউ নিচ্ছিলেন নির্বাচকরা। সেই সময়ই নাকি দেবাং গান্ধীর হোটেলের ঘরে গিয়ে বাঙ্গার প্রশ্ন করেন কেন তাঁকে ব্যাটিং কোচের পদে রেখে দেওয়া হচ্ছে না? সুত্রের খবর এই বিষয়কে কেন্দ্র করে গোটা নির্বাচক কমিটিকেই নাকি কথা শোনান বাঙ্গার। ঘটনায় বেশ চমকে যান নির্বাচকরা। বাঙ্গার কথা শোনালেও তাঁকে আবার ব্যাটিং কোচের পদে ফিরিয়ে আনা হয়নি। সেই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বিক্রম রাঠোরকে। 

এই ঘটনার কথা কানে এসেছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের কর্তাদেরও। কিন্তু সুত্র থেকে পাওয়া খবরের ওপর ভিত্তি করে বাঙ্গারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চায় না বোর্ড। এক বিসিসিআই কর্তা জানিয়েছেন এই পরিস্থিতিতে বোর্ডের নিয়ম অনুযায়ী পদক্ষেপ করতে হবে। বাঙ্গার যাঁকে অপমান করেছেন সেই দেবাং গান্ধী যদি বোর্ডের কাছে অভিযোগ জানান তাহলেই তদন্ত শুরু করতে পারবে বোর্ড। একই সঙ্গে ক্যারেবিয়ান সফরে ভারতীয় দলের ম্যানেজার ও কোচ রবি শাস্ত্রী লিখিত রিপোর্টেও থাকতে হবে ঘটনার কথা। তবে বোর্ড কর্তাদের মতে বাঙ্গারের অধিকার নেই দলের সাপোর্ট স্টাফ নির্বাচন নিয়ে, নির্বাচকদের প্রশ্ন করার। 

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ শুরুর আগেই ২০২১ পর্যন্ত হেড কোচ রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে নতুন চুক্তি করেছে বিসিসিআই। এরপর নির্বাচকদের দায়িত্ব দেওয়া হয় দলের সাপোর্ট স্টাফ নির্বাচনের। ভরত অরুণ ও আর শ্রীধর বোলিং ও ফিল্ডিং কোচের পদ ধরে রাখলেও বাঙ্গারকে ব্যাটিং কোচের পদ থেকে ছেঁটে ফেলেন নির্বাচকরা। এই সিদ্ধান্ত নিয়েই নাকি বেজায় ক্ষুব্ধ প্রাক্তন ভারতীয় ব্যাটিং কোচ। সদ্য শেষ হওয়া ক্যারেবিয়ান সফরেই ভারতীয় দলের ব্যাটিং কোচের পদে দায়িত্ব শেষ হল সঞ্জয় বাঙ্গারের।