ব্রিসবেনে চতুর্থ ফাইনাল টেস্টে দ্বিতীয় দিনের শেষে কিছুটা চাপে ভারতীয় দল। এদিন অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংস শেষ হয় ৩৬৯ রানে।  অভিষেক ন্যাচে তিনটি করে উইকেট পলেনে টি নটরাজন ও ওয়াশিংটন সুন্দর। তিনটি উইকেট নিলেন শার্দুল ঠাকুরও। ফলে ভারতীয় পেস বোলিং অ্যাটাকের রিজার্ভ বেঞ্চের প্রশংসা ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের মুখে। কিন্তু প্রথম ইনিংসে ৩৬৯ রান তাড়া করতে নেমে ২ উইকেট হারিয়ে কিছুটা ব্যাকফুটে টিম ইন্ডিয়া। যদিও দ্বিতীয় দিনের তৃতীয় সেশনের খেলা নষ্ট হয় বৃষ্টির জন্য।

শুক্রবার ২৭৪ রানে ৫ উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করে অস্ট্রেলিয়া। টিম পেইন ও ক্যামরন গ্রিন কিছুটা এগিয়ে নিয়ে যান দলের ইনিংস। নিজের অর্ধশতরানও পূরণ করেন অজি অধিনায়ক। কিন্তু  ৩১১ রানের মাথায় ৫০ রান করে আউট হন পেন। শার্দুল ঠাকুরের শিকার হন তিনি। এরপর পরপর উইকেট পড়তে থাকে অজিদের ৪৭ রান করে ওয়াশিংটন সুন্দরের বলে আউট হন ক্যামরন গ্রিন। এরর কামিন্সকে প্যাভেলিয়নে ফেরত পাঠান  শার্দুল। ন্যাথান লায়নকে আউট করেন ওয়াশিংটন সুন্দর ও হ্য়াজেলউডকে আউট করে ৩৬৯ রানে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংস শেষ করেন টি নটরাজন।

অস্ট্রেলিয়ার দেওয়ার প্রথম ইনিংসের টার্গেট তাড়া করতে নেমে শুরুতেই চাপ পড়ে যায় ভারতীয় দল। এদিন ব্যাট হাতে ব্যর্থ হন শুভমান গিল। মাত্র ৭ রান করেই প্যাট কামিন্সের বলে আউট হন তিনি। এরপর রোহিত শর্মা পুজারাকে সঙ্গে নিয়ে কার্যত একাই টেনে নিয়ে যেতে থাকেন ভারতীয় ইনিংস। কিন্তু বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি তার ইনিংস। ৪৪ রান করে ন্যাথান লায়নের বলে আউট হন হিটম্যান। এরপর পুজারা ও রাহানে লড়াই শুরু করে। কিন্তু বাধ সাধে বৃষ্টি। দিনের তৃতীয় সেশনের খেলা ভেস্তে যায় বরুণ দেবতার কৃপায়। দিনের শেষে ভারতের স্কোর ৬২ রানে ২ উইকেট। অর্থাৎ দ্বিতীয় দিনের শেষে কিছুটা অ্যাডভান্টেজে অস্ট্রেলিয়া। আর তৃতীয় দিনে পুজারা-রাহানে জুটির উপর নির্ভর করছে ভারতীয় ইনিংসের ভবিষ্যৎ।