ভারত, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড হয়ে এবার আমেরিকা পারি দিতে চলেছে নাইট রাইডার্স। আমেরিকায় শুরু হতে চলা মেজর সকার লিগেও বিনিয়োগ করতে চলেছে বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের ফ্র্যাঞ্চাইজি। মেজর লিগ ক্রিকেটে 'মেজর রোল' প্ল করতে চলেছে বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম জনপ্রিয় ও সফল ফ্র্যাঞ্চাইজি। তবে মেজর সকার লিগে নাইটদের দেখতে হলে আরও বেশ কিছু সময় অপো করতে হবে। কারণ ২০২২ সাল থেকে শুরু হচ্ছে এই টি২০ প্রতিযোগিতা।

আমেরিকায় ক্রিকেটকে প্রথম সারির খেলা হিসেবে ধরা না হলেও, ক্রিকেটের ভালো জনপ্রিয়তা রয়েছে। তা দিন দিন দ্রুত গতিতে বাড়ছে। এছাড়াও দক্ষিণ এশিয়ার বহু মানুষ সেখানে বাস করায় ক্রিকেট আরও জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। সেই কারণেই আমামি দিনে আমেরিকায় ক্রিকেটের বড় বাজার রয়েছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই সেখানে ২০২২ সালে থেকে টি২০ প্রতিযোগিতা মেজর লিগ ক্রিকেট শুরু করতে চলেছে আমেরিকান ক্রিকেট এন্টারপ্রাইজ। সেই লিগেই বিনিয়োগের জন্য এসি’র সঙ্গে চুক্তি সেরে ফেলেছে নাইটরা। যদিও, এই লিগে সরাসরি কোনও দলের মালিকানা তারা পাবে না। গোটা টুর্নামেন্টের একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ অংশীদার হতে হবে নাইটদের। আপাতত এই লিগকে আর্থিক সাহায্য এবং ক্রিকেট সম্পর্কিত পরামর্শ দেবে নাইট শিবির। পরে কোনও একটি দলের দায়িত্ব তাদের দেওয়া হতে পারে। শোনা যাচ্ছে, মার্কিন ক্রিকেট লিগে নয় নয় করতে করতে ৬০ থেকে ৭৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ হবে। যার একটা বড় অংশ দেবে নাইট রাইডার্স। সব ঠিক থাকলে, এই লিগেই খেলবে নাইট ফ্র্যাঞ্চাইজির চতুর্থ দল। 

 

 

মেজর লিগ সকারে নাইটদের বিনিয়োগ নিয়ে দলের সিইও ভেঙ্কি মাইসোর বলেছেন,'আমরা বেশ কয়েক বছর ধরেই নাইট রাইডার্স ফ্র্যাঞ্চাইজিকে গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে দিচ্ছি। আমেরিকার ক্রিকেটের দিকেও নজর আছে। আশা করছি, মেজর লিগ ক্রিকেটের মধ্যে সাফল্যের সব রসদ আছে।' কেকেআর মালিক শাহরুখ বলেছেন,'অনেক বছর ধরেই আমরা কেকেআর ব্র্যান্ডটিকে আন্তর্জাতিক স্তরে নিয়ে যাওয়া শুরু করেছি। আমরা লক্ষ করছি, আমেরিকাতেও টি২০ ক্রিকেট লিগ নিয়ে উত্তেজনা রয়েছে। আমাদের বিশ্বাস, সেখানে আমরা সাফল্য পাব।' এর আগে আইপিএল, ক্যারেবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ, দক্ষিণ আফ্রিকার টি২০ লিগে বিনিয়োগ করেছে নাইটরা। ইংল্যান্ডের নতুন প্রতিযোগিতা 'দ্য হান্ড্রেডেও' বিনিয়োগ করছে দল। এবার মেজর লিগ ক্রিকেটে নাইটদের বিনিয়োগের খবরে নয়া খুশি সমর্থকরা।