অতীতেও বার বার নিজের সিনিয়রের পাশে দাঁড়িয়েছেন ভারত অধিনায়ক। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচের পরে ফের একবার মহেন্দ্র সিংহ ধোনির প্রশংসা করে কোহলি জানালেন, আফগানিস্তান ম্যাচের পরে কীভাবে নিজেকে তৈরি করেছিলেন ভারতের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান। 

আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ৫২ বল খেলে মাত্র ২৮ রান করেছিলেন ধোনি। স্বভাবতই ফের একবার তাঁর ব্যাটিং ফর্ম নিয়ে চর্চা শুরু হয়। ধোনির ধীর গতির ব্যাটিং দলের ক্ষতি করছে বলেও সরব হন সমালোচকরা। এর পরেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচে ফের চেনা মেজাজে দেখা যায় প্রাক্তন ভারত অধিনায়ককে। ৬১ বলে ৫৬ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলেন মাহি। তাঁর এবং হার্দিক পাণ্ডিয়ার ব্যাটিংয়ে ভর করেই শেষ পর্যন্ত আড়াইশো পার করে ভারত। 

বার্মিংহামে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলতে নামার আগে কোহলি সাংবাদিকদের বলেন, আফগানিস্তান ম্যাচের পরেই নেটে ব্যাটিং অনুশীলনে বাড়তি সময় দেন ধোনি। অগ্রজের সম্পর্কে বলতে গিয়ে ভারত অধিনায়ক বলেন, 'আফগানিস্তান ম্যাচের পরেই নেটে কঠিন পরিশ্রম করেছে ধোনি ভাই, তার ফলস্বরূপ দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছে যা দলকে জিততে সাহায্য করেছে। দলের বর্তমান অবস্থান এবং যেভাবে ব্যাটিং হচ্ছে তাতে আমরা খুবই খুশি।'

আফগানিস্তান ম্যাচে ধোনি ধীর গতির ব্যাটিং করলেও তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছিলেন বিরাট। বলেছিলেন, অন্যদের মতো ধোনিরও খারাপ দিন আসেই। কিন্তু তা নিয়ে অযথা হইচই শুরু করা হয়। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচে তাঁর প্রতি বিরাটের সেই আস্থাকেই যেন আরও বাড়িয়ে দিয়েছেন ধোনি। আর বিরাটও সুযোগ পেয়েই ফের একবার সমালোচকদের মুখ বন্ধ করিয়ে দিলেন।