আমরা নিজেদের ভাগ্য ফেরানোর জন্য অনেক কিছুই করি। কিন্তু অনেকসময় কিছুতেই কিছু হয়না। অনেক নতুন জিনিস মেনে ছলি,কিন্তু ভুল গুলি ঠিক করে নিইনা।আজকে তাই অবশ্যই নতুন কিছু মেনে চলার সঙ্গে পুরনো ভুল গুলি ঠিক করে নেব। তাহলে জেনে নেওয়া যাক বাস্তুর সেই নিয়মগুলি- 

১। বন্ধ ঘড়ি ঘরে রাখা কখনই উচিত নয়।  ঘরে বন্ধ ঘড়ি থাকা মানে নিজের  ভাগ্য থেমে থাকা। তাই ঘরের সমস্ত ঘড়ি যেন ঠিকমতো কাজ করে অবশ্যই নজরে রাখা উচিত। 

২। প্রত্যেকেই যে যার নিজের ভাগ্যে  খাবার পান। তাই কখনোই খাবার নষ্ট করা উচিত নয়। তাই প্লেটে খাবার নষ্ট করাটা মোটেই উচিত নয়। তেমনভাবেই  খাওয়া-খাওয়ার পরে অতি দ্রুত প্লেট ধুয়ে নির্দিষ্ট স্থানে রেখে দিন। খাবারের প্লেট ধুয়ে রাখলে গৃহ দেবতা খুশি হন এবং এতে পরিবারের মঙ্গল হবে।    

৩। আপনি যে বিছানায় ঘুমবেন অবশ্যই তাঁকে  পরিষ্কার রাখা উচিত। শাস্ত্র এবং বৈদিক মতে এতে সৌভাগ্য ফিরে আসবে।  

৪।  ঘুমানোর সময়টা অবশ্যই নির্দিষ্ট করুন। এতে জন্মকুণ্ডলীতে থাকা চন্দ্র খুশি হন। অবশ্যই এরফলে আপনার শরীর-মন তো ভাল থাকবেই,সঙ্গে ভাল দিনও ফিরে আসবে। 

৫। ঘরের জানলা ভোর বেলা খুলে দিন। ঘরে সূর্য রস্মি প্রবেশ করার পথ তৈরি করুন। এর ফলে ঘরে কোনও পজিটিভ এনার্জি প্রবেশ করবে। এতে শরীরেও পজিটিভি ফিলিং তৈরি হবে ।দিনে অন্তত ২০ মিনিট করে ঘরের জানলা খুলে রাখা উচিত ।

৬। বাথরুম পরিস্কার রাখুন। বাথরুম ব্যবহার করার পরে জলে ভিজে থাকা মেঝেও মুছে ফেলা দরকার। আর যত্রতত্র থুতু ফেলবেন না। নিজের চারিপাশটাকেও পরিস্কার রাখুন।আশপাশের জায়গা পরিস্কার রাখলে বাস্তুমতে আপনি আগের থেকে ভালো থাকবেন। 

৭। সারাদিনের অন্তত কিছুটা সময় খোলা আকাশের নিচে কাটান।পারলে খালি পায় ঘাসের উপর হাতুন।এতে আপনি কসমিক এনার্জির অধিকারি হবেন।