নীলকন্ঠ পাখি উড়িয়ে মা দুর্গাকে শেষ বিদায় জানানোর প্রচলন রয়েছে অনেক জায়গাতেই। এমনকি মা-কে বিদায় জানানো হয় সিঁদুর খেলার মধ্যে দিয়েও। কিন্তু জানলে অবাক হবেন তামিলনাড়ুর এক মন্দিরে মা রামলিঙ্গা সৌদেশ্বরী আম্মানকে বিদায় জানানো হয় নিজেদের রক্ত দিয়ে। এটাই সেখানের নিয়ম। এতে সামিলও হন বহু সংখ্যক মানুষ। 

মঙ্গলবার সব জায়গাতে পালিত হয়েছে বিজয়া দশমী। মা দুর্গাকে বিদায় জানানোর সঙ্গে সঙ্গে আসছে বছরের জন্য আমন্ত্রনও জানিয়ে রাখা হয় বরণের মধ্যেদিয়ে আর সেই সঙ্গে চলে সিঁদুর খেলা পর্ব। দিন সব জায়গাতে যখন মা দুর্গাকে বিদায় জানান হচ্ছে সিঁদুর খেলার মধ্যে দিয়ে। এক দিকে যখন এই ছবি ঠিক সেই সময় দেভাঙ্গা চেট্টিয়ার সম্প্রদায়ের সম্প্রদয়ের অনেকেই দশমী উদযাপন করে নিজেদের রক্ত দিয়ে। এটাই তাদের নিয়ম। এভাবেই নিজেদের রক্ত দিয়ে এই সম্প্রদায় তাদের দেবতা শ্রী রামলিঙ্গা সৌদেশ্বরী আম্মানকে উৎসর্গ করে।

তামিলনাড়ুর কোয়েম্বাটোরে স্বদামবিগাই আম্মান মন্দির থেকে মঙ্গলবারে অর্থাৎ বিজয়া দশমীর দিন একটি শোভাযাত্রা হয়। সেখানে চেট্টিয়া সম্প্রদায়ের অনেকেই তাদের দেবতা শ্রী রামলিঙ্গা সৌদেশ্বরী আম্মানকে জন্য ছুরি দিয়ে নিজেদেরকেই আঘাত করে। ক্ষত বিক্ষত করে নিজেদের শরীর যার ফলে ক্ষরণ হয় রক্তও। শুধু বড়রাই নয় এতে সামিল হয় ছোটরাও। আর এই দৃশ্য দেখতেই  ভিড় উপচে পড়ে কোয়েম্বাটুরে।