মালা রায়ের পরে কাঁকিনাড়ার একটি বুথে ঢুকতে দেওয়া হল না তৃণমূল কংগ্রেস নেতা মদন মিত্রকে। বুথে ঢোকার মুখে তাঁকে কেন্দ্রীয় বাহিনী বাধা দেয় বলে জানা গিয়েছে। 

রবিবার, কাঁকিনাড়ার ৪২ নম্বর বুথে প্রবেশ করতে গেলে ভাটপাড়ার তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী মদম মিত্রকে বাধা দেয় কেন্দ্রীয় বাহিনীর কর্মীরা।

মদন মিত্রের অভিযোগ তিনি প্রার্থী এটা বলার পরেও এবং পরিচয় পত্র দেখানোর পরেও তাঁকে বাধা দেয় কেন্দ্রীয় বাহিনীর কর্মীরা। 

কেন্দ্রীয় বাহিনীর এক কর্মী বলেন, আমার কাজই হল পাবলিককে নিয়ন্ত্রন করা। উত্তরে মদন বলেন, আপিন যেমন কেন্দ্রীয় বাহিনী, আমিও তেমন প্রার্থী। আমারও  অধিকার আছে। এই নিয়ে মদন মিত্র-সহ উপস্থিত তৃণমূলের কর্মীদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বচসা হয়। 

প্রসঙ্গত একই রকম ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ কলকাতার তৃণমূল প্রার্থী মালা রায়ের সঙ্গে। মুদিয়ালির ৭২ নম্বর বুথের ভোটার তিনি। মালা রায় জানান, বিভিন্ন মহল থেকে অভিযোগ আসে, ৪৫ মিনিট ধরে ওই বুথে ভোট বন্ধ আছে। কিন্তু ঠিক কী কারণে ভোট বন্ধ রয়েছে তা জানতেই তিনি বুথে ভিতরে ঢুকতে চান। কিন্তু তখনই কেন্দ্রীয় বাহিনী তাঁকে বাধা দেয়। 

প্রবেশ করার সময়ে কেন্দ্রীয় বাহিনীর কর্মী মালা রায়ের থেকে তাঁর  পরিচয় পত্র দেখতে চান। কিন্তু পরিচয় পত্র দেখানোর পরেও  তাঁকে ঢুকতে দেওয়া হয় না বলে অভিযোগ তৃণমূল প্রার্থীর। এই নিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনীর কর্মীর সঙ্গে বচসা শুরু হয় মালা রায়ের।