গত সেপ্টেম্বর মাসেই জেএনইউ-এর প্রাক্তন ছাত্রনেতা কানহাইয়া কুমারের লোকসভা ভোটেড়ার বিষয়টা পাকাপাকি হয়ে গিয়েছিল। মঙ্গলবার বিহারের বেগুসরাই কেন্দ্রের সিপিআই প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দিলেন তিনি। তাঁর এই মনোনয়ন জমাকে কেন্দ্র করে এদিন বেগুসরাইয়ের সিপিআই কর্মীদের মধ্যে দারুণ উন্মাদনা দেখা যায়। ছাত্র-যুব সমর্থকদের বিশাল মিছিল দেখা যায়।

বেগুসরাই জেলার বারুনি ব্লকের বিহাত পঞ্চায়েতেই কানহাইয়ার বাড়ি। তাঁর মা মীনা দেবী বেগুসরাইয়ের একজন অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী। বাবা জয়শঙ্কর সিং এখানেই কৃষিকাজ করেন। এদিন মনোনয়ন পত্র জমা দিতে বের হওয়ার আগে তিনি মায়ের আশীর্বাদ নেওয়ার একটি ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেন। ছিলেন জেএনইউ-এর নিখোঁজ ছাত্র নাজীবের মা-ও।

সঙ্গে কানহাইয়া লেখেন, মায়েদের আশীর্বাদ ও দোয়া সঙ্গে নিয়েই মনোনয়নপত্র জমা দিতে যাচ্ছেন। মায়েদের কাছ থেকেই শিখেছেন লক্ষ্য যতই বড় হোক, লাগাতার চেষ্টা করে গেলে জয় আসবেই। আর পুরো দুনিয়ার দুঃখ-যন্ত্রনাকে নিজের দুঃখ-যন্ত্রনা হিসেবে দেখা - এই শিক্ষাও মায়ের কাছ থেকেই পাওয়া।

এদিন তাঁর সঙ্গে মনোনয়ন জমা দিতে যাওয়ার মিছিলে নাজীবের মা খতিমা নাফিস, জেএনউই-এর প্রাক্তন নেত্রী শেহলা রশিদ-সহ কানহাইয়ার সব সঙ্গী-সাথীরাই উপস্থিত ছিলেন।

মহাগোটবন্ধনের পক্ষে এই কেন্দ্রে প্রার্থী হয়েছেন আরজেডির ডা, তনভির হাসান। বিজেপির প্রার্থী হয়েছেন গিরিরাজ সিং। আগামী ২৯ এপ্রিল তারিখে লোকসভা নির্বাচন ২০১৯-এর চতুর্থ দফায় এই কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হবে।