সিএবি-এর প্রতিবাদে শুক্রবার থেকেই উত্তাল রাজ্যের বিভিন্ন জেলা। পরিস্থিতি কবলে আনতে তৎপর বুদ্ধিজীবিরা। প্রকাশ্যেই শান্তির বানী দিয়ে চলেছেন সকলেই। তাঁদের মধ্যেই উল্লেখযোগ্য নাম বাদশা মৈত্র। বুদ্ধিজীবি হিসেবে নিজেকে সমাজের সামনে তুলে ধরেন তিনি। তবে এ কোন পদক্ষেপ নিলেন অভিনেতা! সোশ্যাল মিডিয়ায় এক ছবিকে ঘিরে শুরু হয় জল্পনা। 

আরও পড়ুনঃ চল্লিশের দশকের নস্ট্যালজিয়া ফের পর্দায়, শুভ মহরৎ শুরু 'মায়াকুমারী'র

রবিবার প্রকাশ্যে আসে বাদশার মৈত্রের একটি ছবি। সেখানেই দেখা যায় সিএবি-র প্রতিবাদ আন্দোলনের সামনে টুপি পরে দাঁড়িয়ে বাদশা মৈত্র। মুহুর্তে সেই ছবি ছড়িয়ে পড়ে। রীতিমত তোপের শিকার হতে হয় তাঁকে। প্রকাশ্যেই প্রশ্ন ওঠে এই ধরনের আন্দোলনের প্রতিনিধিত্ব করেন তিনি কীভাবে! সমাজে যেখানে শান্তির কথা বলার পরিস্থিতি সেই অবস্থাতে নেতৃত্ব দিচ্ছেন বাদশা!

দিনের শেষে নিজেই মুখ খুললেন অভিনেতা। এক সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকার অনুযায়ী তিনি জানান পুরো বিষয়টাই সাজানো। যেভাবে বিষয়টিকে দেখানো হচ্ছে বাস্তবে তেমনটা হয়নি। বাদশা মৈত্রের কথায়, তিনি এদিন এক অনুষ্ঠানে যোগদিতে যাচ্ছিলেন। মাঝ পথে বিক্ষোভ দেখা মাত্রই তিনি থেমে যান, সেখানে নেমে আয়োজকদের ফোন করে বিষয়টা জানাচ্ছিলেন, এই মাত্র। সেই সময়ই তোলা ছবি এটি। যা বর্তমানে নেট দুনিয়ায় ভাইরাল।