২০১৮ সালে মিটু ঝড় আছড়ে পড়েছিল গোটা হলিউডে। সেই আন্দোলন ছড়িয়ে পড়েছিল গোটা বলিউড থেকে টলিউডেও।  বহু অভিনেতা অভিনেত্রী থেকে শুরু করে পরিচালক, প্রযোজক কর্মক্ষেত্রে যৌন হেনস্তা নিয়ে অকপটে মুখ খুলেছিলেন। শুধু তাই নয়, প্রত্যেকের নামও প্রকাশ্যে এনেছিলেন। কেউ কেউ আবার কাস্টিং কাউচ নিয়েও মুখ খুলেছিলেন। খ্যাতনামা প্রযোজক হার্ভে ওয়েনস্টেইনের বিরুদ্ধেও যৌন হেনস্তার অভিযোগ এসেছিল।  অবশেষ দীর্ঘ এতদিনের লড়াইের পর সাফল্যের মুখ দেখল মিটু। গতকালই নিউ ইয়র্কের জুরি বোর্ড তাকে দোষী সাব্যস্ত করেছে। গতকালই তাকে আটক করা হয়েছে।  আগামী ১১ মার্চ নিউইয়র্ক আদালত  তার সাজা ঘোষণা করবে। ৫ বছর থেকে সর্বোচ্চ ২৫ বছরের কারাদন্ড হতে পারে। 

আরও পড়ুন-শরীর চুঁইয়ে বেয়ে পড়ছে জল, উষ্ণ আবেদনময়ীর এই নাচ ভাইরাল নেটদুনিয়ায়...

সাড়া বিশ্বজুড়ে মিটু ঝড় যখন শুরু হয়েছিস তখন  হার্ভে ওয়েনস্টেইনের নামই প্রকাশ্যে এসেছিল। এক অভিনেত্রী মডেল নিজের সাহসীকতার পরিচয় দিয়ে হলিউডের এই দাপুটে প্রযোজকের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন। তারপর একে একে তার সঙ্গে সরব হন বাকিরা। একটা বা দুটো নয়, তিরিশেরও বেশি অভিযোগ উঠে আসে এই নামকরা প্রযোজকের বিরুদ্ধে।

আরওপড়ুন-মিথিলার বিয়ের মাস দুয়েক পেরোতেই গাটছড়া বাঁধতে চলেছেন প্রাক্তন স্বামী তাহসান...

 

আরও পড়ুন-পরণে গ্লিটারস লং ড্রেস, উত্তাল নাচে ভাইরাল অপরাজিতা...

এককথায় বলতে গেলে যার মুঠোতে পুরো হলিউডের ক্ষমতা ছিল সেই প্রযোজকের এহেন অভিযোগে সকলেই হতবাক হয়ে গিয়েছিস । নিজের এই ক্ষমতার অপব্যবহার করে বহু মহিলার সঙ্গেই ওয়েনস্টেইন অশ্লীল আচরণ করেছেন বলে অভিযোগ। বিশেষ করে নবাগতাদের সিনেমায় সুযোগ করে দেওয়ার নাম করে হোটেলে ডেকে তাদের হেনস্তা করত ওয়েনস্টেইন। ২০০৬ সালে মিমি হ্যালেইকে যৌন নির্যাতন এবং জেসিকা মানকে ২০১৩ সালে ধর্ষণের  অভিযোগে হার্ভে ওয়েনস্টাইনকে দোষী সাব্যস্ত করেছে মার্কিন আদালত।