নবমতম কলকাতা শিশু চলচ্চিত্র উৎসব শুরু হল ১৯ জানুয়ারি। কলকাতার বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে চলবে এই উৎসব। দেখানো হবে মোটের ওপর ১০০টি ছবি। শিশু চলচ্চিত্র উৎসব শুরু হওয়ার পর থেকেই তা ডিসেম্বর মাসের শেষে অনুষ্ঠিত হত। ২০১৯ সালে তা জানুয়ারি মাসে নিয়ে আসা হয়। শীতের দাপট এখন খানিকটা প্রশোমিত। এমনই সময় আবারও খুদেরা গা ভাসাবে ছবি-র উৎসবে। 

আরও পড়ুনঃ 'চিরদিনই আমি যে তোমার' এবং 'মঙ্গল চণ্ডী', দুই ধারাবাহিকের মহাপর্বেই থাকছে চমক

আরও পড়ুনঃ বড় পর্দায় পা রেখেই সাহসী মধুমিতা, মুহূর্তে ছবির গান ভিউ ছাড়ালো মিলিয়ন

২০২০ শিশু চলচ্চিত্র উৎসব চলবে টানা আট দিন। আগামী সপ্তাহে রবিবার পর্যন্ত চলবে এই উৎসব। এই উৎসবে দেশ-বিদেশে বিভিন্ন স্বাদের ছবি দেখার সুযোগ করে দেওয়া হয় ছোটদের জন্য। রবিবার উৎসবের শুরু দিনই প্রদশিত হবে হামিদ। আর কিছুক্ষণের মধ্যেই শুরু হয়ে যাবে নবমতম শিশু চলচ্চিত্র উৎসব। এখানে জার্মানি, মিশর, বাংলাদেশ সহ আরও অন্যান্য দেশের ছবি বাছাই করে নিয়ে আসা হয়েছে। 

 

নন্দন ১, নন্দন ২ ও নন্দন ৩, রবীন্দ্র সদন, শিশির মঞ্চ, চলচ্চিত্র শতবর্ষ ভবন, অহীন্দ্র মঞ্চ, রবীন্দ্র ওকাকুরা ভবন, রবীন্দ্র তীর্থ ও স্টার থিয়েটারে দেখানো হবে ছবি। এই সাত দিন ব্যাপী এই প্রেক্ষাগৃহগুলিতে খুদে দর্শকদের উপচে পড়া ভিড় প্রতিবছরই লক্ষ্য করা যায়। প্রতিবারের মত এবারও বাংলা ছবির বিভাগে জায়গা করে নিল বেশ কয়েকটি ছবি। যার মধ্যে রয়েছে ‘গোয়েন্দা জুনিয়র’, ‘মিতিন মাসি’, ‘সাগরদ্বীপে যকের ধন’, ‘দুর্গেশগড়ের গুপ্তধন’, ‘মনোজদের অদ্ভুত বাড়ি', 'চাঁদের পাড়ার', 'সবুজ দ্বীপের রাজা' প্রভৃতি।