পরিবেশ রক্ষাই হোক কিংবা কোনও সংরক্ষিত এলাকা, নিয়ম ভেঙে প্রবেশ করলেই জরিমানা কিংবা আইনি জটিলতার সন্মুখীন হতে হয় সকলকে। তবে এমন জায়গায় প্রবেশের অনুমতি মেলে কোথা থেকে! মাথার ওপর যদি থাকে মন্ত্রীর হাত তবে অনেক কিছুই সম্ভব। এবার তা প্রমাণ করলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী নবকিশোর দাসের মেয়ে। 

সম্প্রতি হিরাকুঁদ বাঁধের ওপর শ্যুটিং করল ওড়িশার ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির কয়েকজন অভিনেত্রী। তাঁদের সঙ্গেই একই ফ্রেমে ধরা দিলেন মন্ত্রীর মেয়েও। এই এলাকা বর্তমানে সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এখানে প্রবেশ নিষিদ্ধ। তবে কীভাবে শ্যুটিং সম্ভব হল এই স্থানে! একাধিক প্রশ্ন দেখা দিয়েছে এখন এই প্রসঙ্গে। নিয়ম অনুযায়ী এই জায়গায় ফোটোগ্রাফি করা তো দূর, প্রবেশও করা যায় না, প্রবেশ করতে প্রয়োজন বিশেষ অনুমতির।  

আরও পড়ুনঃ গণতন্ত্র আক্রান্ত, পদ্মশ্রী ফেরানোর সিদ্ধান্ত নিলেন সাহিত্যিক

তবে কি মন্ত্রীর কন্যা বলেই সম্ভব হল এই শ্যুটিং। এই স্থানে তিনজনের নাচের শ্যুটিং হওয়ার পরই তা নেট দুনিয়ায় ভাউরাল হয়ে যায়। সাধারণ মানুষের হাতে হাতে যখন ছড়াতে থাকে এই ভিডিও তখনই নজরে আসে হিরাকুঁদ বাঁধ। ওড়িশার সম্বলপুরের পশ্চিমাঞ্চল থানার পুলিশ বর্তমানে তদন্তে নেমেছে। এসপি কানওয়ার বিশাল সিং জানান, এই ভিডিওটি দেখার পরই বিস্তারিত চেয়ে পাঠানো হয়। বর্তমানে এই মন্ত্রীর মেয়ে ও দুই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।