মাতৃ দিবস মানে শুধুই মাকে নিয়ে বেড়াতে যাওয়া বা তাঁকে উপহার দেওয়া নয়। মাতৃ দিবস হল মাতৃত্বের উদযাপন। বিশ্ব মার্তৃদিবসে এই সুন্দর দিনটায় অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত জানালেন তাঁর মনের কথা আমাদের সংবাদমাধ্য়মকে। 

 

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

With my pillars of strength ....my children.....

A post shared by Rituparna Sengupta (@rituparnaspeaks) on Apr 20, 2019 at 8:18pm PDT

 

 

 

আরও পড়ুন, 'কবিগুরু অন্ধকার সময়ে লড়তে বলে গেছেন, দিয়েছেন আশার বাণী', রবীন্দ্রজয়ন্তিতে শ্রদ্ধা জানালেন ঋতুপর্ণা

 ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত জানালেন, 'আমার কাছে রোজই মনে হয় মাদারস ডে। মায়ের সান্নিধ্য়, মায়ের ভালোবাসা, মায়ের স্নেহ পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ। যারা মাকে পায়নি বা মাকে ছোটবেলায় হারিয়েছেন, তাঁরা কি হারিয়েছে সেটা বোধয় ভাষায় ব্য়ক্ত করতে পারব না। আমার মা আমায় শাসন করেছে, বকেছে, সাবধান করেছে কিংবা গুরুত্বপূর্ণ ব্য়াপারে উপদেশ দিয়েছে।  এখন আমি সন্তানের মা। এখন বুঝি যে সন্তানের জন্য় কেন মায়ের মন কাঁদে-ভিতরটা হাহাকার করে। সব কিছুর উর্ধ্বে গিয়ে সে তাঁর সন্তানকে আপন করে নেয়। আমার মনে হয় অনেক ঝড়-ঝঞ্জা পেরিয়েও একজন মায়ের কাছে সবচেয়ে বড় হয়ে ওঠে তাঁর সন্তান। আমি সেটার মর্ম বুঝি। আমি সবসময় মনে করি আমি যদি আরও ভালও মা হতে পারতাম, আমার বাচ্চাকে আরও বেশি টেক কেয়ার করতে পারতাম। তবে লকডাউনে মনে হয় বাচ্চারা এবং মায়েরাও সবথেকে বেশি সময় কাটাচ্ছে। আমার মাও আমাকে কমপ্লেন করে, যতটা ফোন করার কথা ততটা করিস না। কাজে ব্য়স্ত থাকিস, আর ভূলে যাস। তবে মায়ের স্নেহ কোনওদিন কোনও কিছুর সঙ্গে তুলনা হয় না।'

 

 

 

 

আরও পড়ুন, 'অস্ট্রেলিয়াতে প্রত্য়েক সন্ধেবেলা ওনার থেকে মজার গল্প শুনতাম', ঋষি কাপুরের মৃত্যুতে স্মৃতির শহরে ঋতুপর্ণা


অপরদিকে  ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত  ভিডিওবার্তায় মায়ের কথা মনে করে মায়ের সঙ্গে ছবি এবং সন্তানের সঙ্গের ছবিও শেয়ার করেছেন। মেয়ের সঙ্গে অসাধারণ নৃত্য় পরিবেশনও করেছেন তিনি। ভিডিওবার্তায় ঋতুপর্ণা আরও জানালেন, 'আমি জীবনে যত পুরষ্কার পেয়েছি বা পাব, সব কিছুর উর্ধ্বে গিয়ে মাতৃত্ব। আমি যেদিন মা হয়েছিলাম, সেদিন মনে হয় আমার সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি এবং অ্য়াচিভমেন্ট হয়েছিল। এবং আমি মনে করি, যারা মাকে ভালোবাসেন তাঁরা ইশ্বরকে সবসময় কাছে পাবেন। যারা মাকে অত্য়াচার করে, বাজে ব্য়বহার করে, তাদেরকে আমি একটাই কথা বলব, মাকে যে ভালবাসবে সে জীবন থেকে অনেক কিছুই পাবে। আজকে আমি আমার মাকে আমি অনেক ভালবাসা-শুভেচ্ছা দিতে চাই এবং সঙ্গে মায়ের থেকে আমিও নিতে চাই। যারা সন্তানকে জন্ম দেননি কিন্তু লালন-পালন করেছেন তাঁদের হৃদয়ও অনেক বড় হয়। বিশ্বের সব মাকে  বিশ্বমাতৃদিবসে জানাই স্য়ালুট এবং অনেক ভালবাসা।'

আরও পড়ুন, হৃদয়ের নানা ঋতুতে-সঙ্গে 'সোশ্য়াল ইস্য়ু'তেও, বাজিমাত ঋতুপর্ণার অফিসিয়াল ইউটিউব চ্য়ানেল