ঘরে আটকে থাকা অবস্থায় মোবাইল খুললেই একের পর এক খাবারের পোস্ট। যা দেখে ছোট থেকে বড় সবাই কুপোকাৎ। করোনা ভাইরাস হোক বা লকডাউন বাঙালি খাওয়ার পেলে আর কারও ধার ধারে না। এমন পরিস্থিতিতে দোকান খোলা না থাকলে কি হবে বাড়িতেই তৈরি হচ্ছে যাবতীয় মন পসন্দ খানা। নেট দুনিয়ার দৌলতে এমন বহু রেসিপি সামনে এসেছে যার ফলে এই লকডাউনে বাড়িতে জিলিপি থেকে ডালগোনা সব হিট।

আরও পড়ুন- কম খরচে পুষ্টিকর জল খাবার, ঝটপট তৈরি হয় ভালো থাকে শরীরও

করোনা আতঙ্কের জেরে কার্যত ঘরবন্দি বেশির ভাগ জন জীবন। এমন অবস্থায় আতঙ্কিত না হয়ে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা বজায় রেখে বাড়িতে থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। অন্যদিকে এমন সময় বিশেষ নজর দিতে হচ্ছে খাবারেও। বর্তমাবে এমন পরিস্থিতিতে অনেকেই টাকা থাকলেও জিনিস কিনতে সমস্যায় পড়ছেন। আবার অনেকেই কম খরচের মধ্যে সংসার সামলাচ্ছেন। এমন জটিল পরিস্থিতিতে সামান্য খরচায়ও পরিবারের মনও ভালো রাখতে হচ্ছে। একটানা এতদিন ঘরবন্দিতে নাজেহাল হয়ে পড়ছেন অনেকেই। তাই বিকেলে পরিবারের সঙ্গে চায়ের আড্ডা জমিয়ে তুলতে চটজলদি মুখরোচক পদ বানাতে অবশ্যই ট্রাই করুন এটি।

আরও পড়ুন- চটজলদি তৈরি হবে মুখরোচক মশলাদার জলখাবার, যা মন ভালো করবে আর সুস্থ রাখবে শরীরও

প্রতিদিন একঘেয়ে খাবার খেতে সবথেকে কষ্ট হচ্ছে ছোটদের। তাই বিকেলের জলখাবারে তাদের মন ভালো করে দিতে অবশ্যই রাখতে পারেন এই পদ। আজ রইল জিভে জল আনা অসাধারণ চারটি স্ন্যাক্সের রেসিপি যা আলু ও সমস্ত ঘরোয়া উপকরণ দিয়ে সহজেই বানিয়ে দিতে পারবেন। তাই হাতের কাছে থাকা উপকরণ দিয়ে বানিয়ে ফেলুন পটাটো স্ন্যাক্স। এই পদগুলি বানানো সহজ আর বাচ্চাদেরও বেশ পছন্দের। দেখে নেওয়া যাক সহজ চারটি পটাটো স্ন্যাক্সের রেসিপি-