আরও জমে উঠল লা লিগা। লিগ টেবিলে শীর্ষস্থান হারাল মেসির বার্সেলোনা। এক নম্বর উঠে আসল জিনেদিন জিদানের রিয়াল মাদ্রিদ। সেভিয়ার সঙ্গে বার্সেলোনার আটকে যাওয়াতেই সুযোগ তৈরি হয়ে গিয়েছিল রিয়ালের কাছে। দরকার ছিল শুধু একটা জয় । রিয়াল সোসিদায়ের বিরুদ্ধে সেই প্রতীক্ষিত জয় পেতেই টেবিল টপার হয়ে গেল রিয়াল মাদ্রিদ। এদিন ম্যাচে রিয়াল সোসিয়াদকে ২-১ গোলে হারায় রিয়াল মাদ্রিদ। ম্যাচে রিয়ালের হয়ে গোল করলেন রামোস ও বেঞ্জিমা। 

আরও পড়ুনঃপ্রয়াত রঞ্জি ট্রফির ইতিহাসে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী, শোকস্তব্ধ ক্রিকেট মহল

এদিন অ্যাওয়ে ম্যাচে প্রথম থেকেই ঘর সামলে আক্রমণে শুরু করে রিয়াল। ম্যাচের প্রথমার্ধের খেলা শেষ হয় গোলশূন্যভাবে। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই পেনাল্টি পেয়ে যায় মাদ্রিদ। ৫০ মিনিটে স্পট কিক থেকে গোল করেন রামোস। এই গোলের সুবাদে তিনি লা লিগায় সব থেকে বেশি গোল করা ডিফেন্ডারের তকমা পেলেন। ৭০ মিনিটে ভালভারদের পাস থেকে গোল করে রিয়ালের হয়ে ব্যবধান বাড়িয়ে ২-০ করেন বেঞ্জেমা। ৮৩ মিনিটে রবার্তো লোপেজের পাস থেকে গোল করেন সোসিয়েদাদের মিকেল মেরিনো। কিন্তু ম্য়াচের ৬৮ মিনিটে সোসিয়াদের একটি গোল ভিআর দেখে বাতিল করেন রেফারি। শেষে ২-১ গোলেই ম্যাচ জিতে মাঠ ছাড়ে রিয়াল প্লেয়াররা।

আরও পড়ুনঃপ্রমাণ হিসেবে ভিডিও পাঠিয়ে বিমার টাকা দাবি স্টার্কের

আরও পড়ুনঃঅবশেষে প্যান্ট পড়ানোয় খুশি ইনিয়েস্তা,জানালেন ধন্যবাদ

লকডাউন পরবর্তী সময়ে লা লিগায় ২ পয়েন্টের ব্যবধান নিয়ে লিগের অভিযান শুরু করেছিল বার্সা। কিন্তু শেষ ম্যাচে সেভিয়ার বিরুদ্ধে ড্র করে কিকে সোতিয়েনের দল। আর সোসিয়াদকে হারিয়ে বার্সাকে ধরে ফেলল রিয়াল মাদ্রিদ। ৩০ ম্যাচে উভয় দলেরই পয়েন্ট সংখ্যা ৬৫। গোল পার্থক্যে এগিয়ে বার্সেলোনা ৩৮-৩৬। তবে দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে রিয়াল। চলতি লা লিগায় বার্সার বিরুদ্ধে অ্যাওয়ে ম্যাচ ড্র করেছিল রিয়াল। ঘরের মাঠে জয় তুলে নিয়েছিল এল ক্লাসিকোয়। অর্থাৎ দুই লেগ মিলিয়ে মুখোমুখি লড়াইয়ে রিয়াল এগিয়ে ৪-১ পয়েন্টে। সেই কারণেই বার্সাকে টপকে টেবিলের শীর্ষস্থান দখল করে নিল বার্সা। ফলে আগামী দিনে লা লিগায় টানটান লড়াই দেখার অপেক্ষায় ফুটবল বিশ্ব।