গত বছর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হয়েছিলেন এটিকে মোহনবাগান দলের তারকা গোলরক্ষক অরিন্দম ভট্টাচার্যের বাবা। আর এক বছর হতে না হতেই মাতৃহারা হলেন অরিন্দম। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হলেন অরিন্দমের মা অন্তরা ভট্টাচার্য। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় মায়ের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর জানিয়েছিলেন তারক গোলরক্ষক। জানিয়ে দিয়েছিলেন মায়ের অসুস্থতার কারণে এটিকে মোহনবাগানের হয়ে খেলতে যেতে পারবেন না এফএসি কাপ। কিন্তু শত চেষ্টা করেও হল না শেষরক্ষা।

 

 

প্রায় ২ সপ্তাহ আগে মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন অন্তরা ভট্টাচার্য। শারীরিক পরিস্থিতি খারাপ হওয়ায় ভর্তি করা হয় এক বেসরকারি হাসপাতালে। রবিবার তাঁর শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয়। ভেন্টিলেশনে দেওয়া হয় তাঁকে। সোমবার সকাল ৬:১৫ নাগাদ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৬২ বছর। মাতৃ বিয়োগের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেগঘন বার্তায় অরিন্দম লেখেন,'খুব তাড়াতাড়ি চলে গেলে মা। কিন্তু আমি জানি এখন তুমি অনেক ভালো জায়গায় আছো। সেখানে বাবার খেয়াল রেখো ও আমি ও দাদার তরফ থেকে তাকে শুভ জন্মদিন জানিও। সাবধানে থেকো আমাদের জীবনের পরে আবার এক না হওয়া পর্যন্ত।'

 

 

মায়ের মৃত্যুতে একেবারেই ভেঙে পড়েছেন এটিকে মোহনবাগানের এক নম্বর গোলকিপার। অরিন্দমের মায়ের প্রয়াত হওয়ার খবর পেয়ে সমবেদনা জানান এটিকে মোহনবাগান কোচ আন্তনিয়ো লোপেজ হাবাসও। অরিন্দমকে ফোন করে কথা বলেন তিনি। অরিন্দম ভট্টাচার্যকে সমবেদনা জানানোর পাশাপাশি তার পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছে এটিকে মোহনবাগান দল।