বুধবার গুয়াহাটিতে আইএসএল দলে নর্থ ইস্ট ইউনাইটেড এফসির বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছিল ভারতীয় দল। সেই ম্যাচেই ধাক্কা খেতে হল ভারতীয় দল। সেই ম্যাচেই চোট পেলেন ভারতীয় দল এক নম্বর ডিফেন্ডার সন্দেশ ঝিঙ্গন। চোটের অবস্থা ভাল নয় দেখে ভারতীয় দল জানিয়েছিল বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ম্যাচে পাওয়া যাবে না তাঁকে। কিন্তু এমআরআই রিপোর্ট জানিয়ে দিল আবস্থা আরও খারাপ। সন্দেশের এসিএল টিয়ারে চোট খুবই গুরতর। শুধু বিশ্রামে এই চোট থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে না অস্ত্র পচার করতে হবে সন্দেশ ঝিঙ্গনের। প্রায় ছয় মাস মাঠের বাইরে তিনি।

আরও পড়ুন - ভারতের বিরুদ্ধে খেলতে ‘সেকেন্ড হোমে’ পৌছে গেল মামুনুলের বাংলাদেশ

দলের এক নম্বর ডিফেন্ডারের চোটে মাথায় হাত ভারতীয় দলের কোচ ইগর স্টিমাচে। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সন্দেশের বদলি হিসেবে আনাস ছাড়া আরও কোনও বিকল্প নেই। তার ওপর আবার আগামী ম্যাচ গুলোর কথাও ভাবতে হচ্ছে। নভেম্বরে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে খেলা। তারপর নভেম্বরেই ওমানের বিরুদ্ধে খেলা। তারপর মার্চে ঘরের মাঠে খেলা কাতারের বিরুদ্ধে। তার আগে সন্দেশকে পাওয়া যাবে কি না তা নিশ্চিত নয়। বাংলাদেশ ইতিমধ্যেই চলে এসেছে কলকাতা। ভারতীয় দল ১৩ তারিখ পৌছাবে শহরে। 

আরও পড়ুন - প্রতিপক্ষকে ১৪ গোল দিয়ে, মহিলাদের মাঠে স্বাগতে জানাল ইরান ফুটবল দল, ম্যাচে রেফারির দায়িত্বে বাংলার প্রাঞ্জল

সন্দেশের চোটে যে শুধু ভারতীয় দলের কপালে চিন্তার ভাঁজ, তা নয়, কেরালা ব্লাস্টার্স দলেও চাপে। কারণ ২০ তারিখ থেকে শুরু হচ্ছে আইএসএল। তারাও প্রথম পর্বের একাধিক বড় ম্যাচে পাচ্ছে না সন্দেশকে। ভারতীয় দলের কোচ ইগর স্টিমাচ জানিয়েছেন সন্দেশর মত একজন নেতাকে না পাওয়াটা তাঁর কাছে অনেক বড় ধাক্কা। ১৫ তারিখ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে কলকাতায় নামতে চলেছে ইগর স্টিমাচের ভারতীয় দল। 

আরও পড়ুন - বিরাট বিক্রমে প্রোটিয়াদের ওপর ৬০১ রানের পাহাড় চাপাল ভারত, তিন উইকেট হারিয়ে চাপে প্রোটিয়ারা