অবশেষে কাটল দুশ্চিন্তার কালো মেঘ। সফল হল ডিয়েগো মারাদোনার মস্তিষ্কর অস্ত্রোপচার। মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বেঁধে যাওয়ায় দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছিল ষাট বছর বয়স্ক ফুটবল কিংবদন্তিকে।  অস্ত্রোপচারের পর আপাতত মারাদোনার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল বলেই জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

মারাদোনার ব্যক্তিগত চিকিৎসক তথা নিউরোসার্জেন লিওপ্লোডো লুক সংবাদমাধ্যমদের জানিয়েছেন, মারাদোনার মাথার হেমাটোমা অর্থাৎ রক্ত জমাট বাঁধা অঞ্চল সফলভাবে অস্ত্রোপচার করে বের করা গিয়েছে। অস্ত্রোপচারের ধকল ভালোভাবেই সামাল দিতে পেরেছেন ফুটবল ঈশ্বর। প্রায় দেড় ঘন্টা সময় ধরে চলে অস্ত্রোপচার। এইমুহূর্তে অপারেশন সফল হলেও চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে মারাদোনাকে। এমনিতে এই অস্ত্রোপচারটি চিকিৎসকদের কাছে বিরল কিছু একেবারেই নয়। তবে অনিয়মিত জীবনযাপনের ফলে মারাদোনার একাধিক শারীরিক সমস্যা নিয়েই চিন্তায় ছিলেন চিকিৎসকরা। 

মারাদোনার অনিয়মিত জীবনযাপনের কথা  কারোর অজানা নয়। প্রথমে অ্যানিমিয়া ও ডিহাইড্রেশন নিয়ে পরে মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বাঁধা ধরা পড়ে তার। গত শুক্রবারই তার জন্মদিন ছিল। শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো থেকে শুরু করে আরও বিখ্যাত ক্রীড়া ব্যক্তিত্বরা। স্থানীয় ক্লাব জিমনাসিয়ার কোচিংয়ের দায়িত্বে ছিলেন ফুটবল ঈশ্বর। তাঁর জন্মদিন উপলক্ষে ক্লাবের ম্যাচের আগে ভক্তদের দেখাও দিয়েছিলেন সেদিন তিনি।আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েনস এইয়র্সের ওলিভোস ক্লিনিক হাসপাতালের বাইরে জমা হওয়া মারাদোনার সমর্থকরা সফল অস্ত্রোপচারের খবর শুনেই তার নামে জয়ধ্বনি দেন। তারা জানান মন থেকে সর্বকালের সর্বসেরা ফুটবলারের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন সকলে।