২০২২ বিশ্বকাপের জন্য নির্মিত হতে চলা তৃতীয় স্টেডিয়ামের রূপ ভার্চুয়াল প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে প্রকাশ্যে আনা হলো সোমবার। স্টেডিয়ামেটি উৎসর্গ করা হলো করোনা ভাইরাসের সঙ্গে লড়তে থাকা যোদ্ধাদের উদ্দেশ্যে। এখনও অবধি পাওয়া খবর অনুযায়ী স্টেডিয়ামটির দর্শক ধারণ সংখ্যা হতে চলেছে প্রায় ৪০,০০০। স্টেডিয়ামটির বলা হচ্ছে ডায়মন্ড ইন দ্য ডেসার্ট, অর্থাৎ মরুভূমির মধ্যে মুক্ত। এটি কাতার বিশ্বকাপের তৃতীয় নির্বাচিত ভেন্যু। একইসাথে আরও পাঁচটি স্টেডিয়াম নির্মাণের কাজ চলবে পাশাপাশি। 

আরও পড়ুনঃফের ভোলবদল,কটাক্ষের পর এবার বিরাটেরও প্রশংসা করলেন গম্ভীর

এই স্টেডিয়াম টি বাদ দিয়ে ৬০,০০০ আসন বিশিষ্ট আল-ব্যয়ত স্টেডিয়াম এবং ৪০,০০০ দর্শক আসন বিশিষ্ট আল-রায়ান স্টেডিয়াম দুটির নির্মাণকাজ চলতি বছরের শেষ দিকেই সম্পূর্ণ হয়ে যাবে। বিশ্ব ফুটবল নিয়ামক সংস্থা ফিফা-র সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো এর মাঝেই জানিয়েছেন তিনি কাতারের কাজ দেখে খুশি এবং আশা করছেন খুব তাড়াতাড়ি পৃথিবী আবার আগের অবস্থায় ফিরে আসুক যাতে দর্শকরা আবার মাঠে বসে খেলা দেখতে পারেন এবং তাতে কোনও নিষেধাজ্ঞা না থাকে। 

আরও পড়ুনঃশহীদ প্রতি শ্রদ্ধা ও চিনা হামলার তীব্র নিন্দা বাইচুং,সুনীল,সাইনাদের

আরও পড়ুনঃভারত-চিন সংঘর্ষ নিয়ে বিতর্কিত ট্যুইট,চাকরি গেল সিএসকে চিকিৎসকের

একইসাথে কাতারের ফিফা বিশ্বকাপ নিয়ে চলতে থাকা কাজের প্রশংসা করেছিলেন তিনি। তিনি বলেছেন নতুন স্টেডিয়ামের পরিকল্পিত চেহারা দেখে মন্তব্য করেছেন, এই স্টেডিয়ামে বুঝিয়ে দিচ্ছ যে ফুটবল জগৎ আবার একদিন পুরোপুরি স্বাভাবিক হবে এবং ফুটবল আরও প্যাশন নিয়ে ফিরে আসবে সবার কাছে। তিনি আরও বলেছেন যে সেই সময় খুব দূরে নেই যখন সকলে নিজের বন্ধু-বান্ধব এবং পরিবার নিয়ে খেলা দেখতে আসবেন এবং এইরকম সুন্দর ও আধুনিক স্টেডিয়াম তাদের খেলা দেখার আনন্দ আরও বাড়িয়ে তুলবে।