দুদিন আগে ইস্টবেঙ্গল কর্তা দেবব্রত সরকার ওরফে নীতুদা জানিয়েছিলেন এই বছর ইস্টবেঙ্গলের আইএসএলে খেলার সম্ভাবনা ৮০ শতাংশ। একইসঙ্গে জানিয়েছিলেন নতুন স্পনসরের সঙ্গেও কথা এগিয়েছে। খুব শীঘ্রই নতুন স্পনসরের নাম ঘোষণা করা হবে ক্লাবের তরফ থেকে। নীতুদার মুখে এই কথা শুনে কিছুটা আশ্বস্ত হয়েছিল লাল-হলুদ সমর্থকরা। চারপর মঙ্গলবার ক্লাবে নতুন সংস্থার বিজ্ঞাপনী হোর্ডিংও আশা সঞ্চার করেছিল ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদরে মনে। কিন্তি বিকেল হতে না হতেই সব আশায় জল ঢেলে দিল আইএসএল কর্তৃপক্ষ। 

আরও পড়ুনঃমেসি-কে টপকে বাজি মারলেন রোনাল্ডো

বিকেলে আইএসএলের পক্ষ থেকে তাদের সমস্ত সোশ্য়াল মিডিয়া অ্যাকাউন্টের প্রোফাইল ছবি পালটে দেওয়া হয়। নতুন ছবিতে দেখা যায় ১০টি দলের লোগে যারা এই বছর আইএসএল খেলবে। সেখানে নেই ইস্টবেঙ্গলের লোগো। যেখানে বাঁ-দিকে রয়েছে এটিকে-মোহনবাগান। তিনবারের চ্যাম্পিয়ন দল এটিকে। মোহনবাগানের সঙ্গ গাঁটছড়া বেঁধে নতুন পথচলা শুরু তাদের। তারপরই রয়েছে বেঙ্গালুরু এফসি। বাকি আটটি দল হল চেন্নাইয়িন এফসি, এফসি গোয়া, হায়দরাবাদ এফসি, জামশেদপুর এফসি, কেরালা ব্লাস্টার্স এফসি, মুম্বই সিটি এফসি, নর্থইস্ট ইউনাইটেড এফসি এবং ওড়িশা এফসি। এমনকী আইএসএলের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটেও স্থান পেয়েছে এই দশটি দলই।

আরও পড়ুনঃকরোনা মোকাবিলায় ফের মানবিক মেসি, আর্জেন্টিনা বিভিন্ন হাসপাতালে দিলেন ভেন্টিলেটর

আরও পড়ুনঃআইপিএলে নতুন 'এইট প্যাক' লুকে নবদীপ সাইনি, মরু দেশে ঝড় তুলতে প্রস্তুত ভারতীয় স্পিড স্টার

আইএসএলের পক্ষ থেকে এই ছবি শেয়ার করার পরই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে এই বছর কি আর তাহলে আইএসএল খেলা হচ্ছে ইস্টবেঙ্গলের। লাল-হলুদের অনেক ভক্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় হতাশাও প্রকাশ করেছে। তবে আইএসএল বা এপএসডিএলের পক্ষ থেকে এমন কোনও ঘোষণা করা হয়নি যাতে বলা হয়েছে ইস্টবেঙ্গলের আর এই মরসুমে খেলার কোনও সম্ভাবনা নেই। এই  দশ দলের লোগো প্রকাশের পর ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের তরফ থেকেও সরাকারিভাবে কোনও ঘোষণা করা হয়নি। এখন অলীক কোনও ঘটনা ছাড়া ইস্টবেঙ্গলের জন্য আইএসএলের দরজা খোলা অসম্ভব বলেই মনে করছেন ফুটবল বিশেষজ্ঞরা।